খুলনা, বাংলাদেশ | ১০ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২৪ জুন, ২০২৪

Breaking News

  পাবনা সদর উপজেলার নতুন গোয়াইলবাড়ি এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু
  ব্লগার নাজিমুদ্দিন হত্যা : মেজর জিয়াসহ ৪ আসামির বিচার শুরু, ৫ জনকে অব্যাহতি
সাতক্ষীরায় পতাকা বৈঠক

সীমান্তে অপরাধ দমন করতে চায় বিজিবি-বিএসএফ

নিজস্ব প্রতিবেদক,সাতক্ষীরা

সীমান্তে চোরাচালান ও অপরাধ দমনে সাতক্ষীরার দেবহাটায় বিজিবি ও বিএসএফ’ও মধ্যে ব্যাটালিয়ন কমান্ডার পর্যায়ে এক পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ জানুয়ারি) দেবহাটার রূপসী ম্যানগ্রোভ পর্যটন কেন্দ্রে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

পতাকা বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে ১০ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন সাতক্ষীরার নীলডুমুরস্থ বিজিবি ১৭ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেঃ কর্নেল মোহাম্মদ কামরুল আহসান। এছাড়া ভারতীয় ৮ সদস্যের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন বিএসএফ’র ৮৫ ব্যাটালিয়নের কমান্ড্যান্ট অনুরাগ মানী।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন ১৭ বিজিবির ভারপ্রাপ্ত অ্যাডজুটেন্ট ক্যাপ্টেন শাহ রেজা আল-ফামি। ভারপ্রাপ্ত কোয়াটার মাস্টার সহকারী পরিচালক শাহ খালেদ ইমামসহ ২ জন কোম্পানি কমান্ডার ও অন্যান্য পদবীর ৫ জন উপস্থিত ছিলেন। এছাড়া বিএসএফের পক্ষ থেকে আরও উপস্থিত ছিলেন, ডেপুটি কমান্ড্যান্ট মুকেশ কুমার, ৩ জন কোম্পানি কমান্ডার সহ অন্যান্য পদবীর ৩ জন সদস্য।

ঘণ্টাব্যাপী অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে সীমান্তে নজরদারি বাড়ানো, সীমান্ত হত্যা বন্ধ, বিএসএফ ও ভারতীয় নাগরিক কর্তৃক বাংলাদেশি নাগরিককে আহত না করা, দুই দেশের সীমান্তবর্তী চোরাচালান প্রতিরাধ, নারী ও শিশু পাচার বন্ধ, অবৈধ অনুপ্রবেশ রোধ, মাদকসহ চোরাচালান বন্ধ করা এবং আন্তঃসীমান্ত অপরাধ কমানোর বিষয়ে আলোচনা হয়।

এছাড়া উভয় বাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার লক্ষ্যে সীমান্ত এলাকায় সৃষ্ট যে কোনো অনাকাঙ্খিত ঘটনায় একে অপরের সার্বিক সহযাগিতা ও যোগাযোগের মাধ্যমে দ্রুত সমস্যা সমাধান করে ফেলা। সভায় বিজিবি-বিএসএফের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সুসম্পর্ক আরও সুদৃঢ় করার ব্যাপারে উভয়পক্ষ ঐক্যমত পোষন করে।

পতাকা বৈঠক ও পর্যবেক্ষণ সভা ফলপ্রসু হয়েছে জানিয়ে নীলডুমুরস্থ বিজিবি ১৭ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল মোহাম্মদ কামরুল আহসান বলেন, পতাকা বৈঠকে সীমান্তে নজরদারী বৃদ্ধি, সীমান্তে হত্যা বন্ধ, অহেতুক বাংলাদেশি নাগরিককে আহত না করা, চোরাচালান প্রতিরাধ, নারী ও শিশু পাচার এবং অনুপ্রবেশ রোধ, মাদকসহ চোরাচালান বন্ধ করা এবং আন্তঃসীমান্ত অপরাধ কমানোর বিষয়ে বিস্তরিত আলোচনা হয়েছে।

এ ছাড়া উভয় বাহিনীর মধ্যে বিদ্যমান সৌহার্দপূর্ণ সম্পর্ক বজায় রাখার লক্ষ্যে সীমান্ত এলাকায় সৃষ্ট যে কোনো সমস্যা একে অপরের সহযোগিতা ও যোগাযোগের মাধ্যমে দ্রুত সমাধানের বিষয়ে উভয়পক্ষ সম্মত হয়েছে।

খুলনা গেজেট/ এসজেড

 

 

 

 

 




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!