খুলনা, বাংলাদেশ | ১ আশ্বিন, ১৪২৮ | ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

Breaking News

  ডেঙ্গুতে আরও ২৩৪ জন হাসপাতালে ভর্তি ; ঢাকায় ১৮২
  ইভ্যালির প্রতিষ্ঠাতা রাসেল ও চেয়ারম্যান নাসরিন গ্রেপ্তার, ২১ অক্টোবরের মধ্যে মামলার প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

নগরীতে ৭ আগষ্ট থেকে প্রতিদিন টিকা পাবেন ১৮ হাজার

নিজস্ব প্রতিবেদক

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের কোভিড ১৯ ভ্যাকসিন ব্যবস্থাপনা টাক্সফোর্স কমিটির নির্দেশনায় ৭ আগস্ট থেকে কেসিসি এলাকায় ৩১ টি ওয়ার্ডে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হবে। ৩১টি ওয়ার্ডে ৯৩ টি কেন্দ্রে টিকাদান কার্যক্রম চলবে। ১৮ বছরের উর্দ্ধে সকল নারী পুরুষ টিকা পাবেন। এসব কেন্দ্রে মর্ডানার টিকা প্রদান করা হবে। মহানগরী এলাকায় ৫টি পয়েন্টে বর্তমানে টিকাদান কার্যক্রম চলছে।

টার্স্কফোর্সের নির্দেশনায় আজ বৃহস্পতিবার সিটি কর্পোরেশন মিলনায়তনে কেসিসির কর্মকর্তাদের এক সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক ভার্চুয়ালী ঢাকা থেকে এ সভায় সভাপতিত্ব করেন।

সভায় বলা হয় করোনা নির্মূলে ৩১ টি ওয়ার্ডে ইপিআই কেন্দ্রে সপ্তাহে ৬দিন টিকাদান কার্যক্রম চলবে। প্রতিটি ওয়ার্ডে তিনটি করে কেন্দ্রে একটি করে টিম কাজ করবে। সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৩টা পর্যন্ত টিকাদান কার্যক্রম চলবে। টিকা গ্রহনের পরে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে কেন্দ্রে এক ঘন্টা অবস্থান করতে হবে। ১৮ বছরের উর্দ্ধে সকল নারী পুরুষ এ সুবিধা পাবেন। অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা প্রদানের লক্ষে দুপুর ১২টা পর্যন্ত বয়োজেষ্ঠ্য ও নারীদের টিকা প্রদান করা হবে। প্রতিটি টিমে প্রতিদিন কমপক্ষে ২শ’ থেকে আড়াই শ জনকে মর্ডানার টিকা প্রদান করা হবে। কেন্দ্রে রেজিস্ট্রেশনের পর টিকা গ্রহনকারীদের কোভিড ১৯ টিকার কার্ড প্রদান করা হবে। দ্বিতীয় ডোজের সময় অবশ্যই টিকার কার্ড সঙ্গে রাখতে হবে। খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকায় এ কর্মসূচি সফল করতে মাইক্রোপ্লান তৈরি করা হয়েছে।

কর্পোরেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের সূত্র বলছে, প্রতিটি ওয়ার্ডে ৬ জন করে দক্ষ ইপিআই টিকাদানকর্মী প্রশিক্ষণ হবে। ৩১ জুলাই থেকে ৩ আগস্ট পর্যন্ত প্রতি ব্যাচে ৩০ জন করে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করবেন। টিকাদান কর্মী হিসেবে প্রতিটি ওয়ার্ডের ভ্যাক্সিনেটর, স্টাফ নার্স, নার্সিং স্টুডেন্ট ও অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মীদের নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে। এই সূত্র তথ্য দিয়েছেন ৭ আগস্ট থেকে যাদের টিকা দেওয়া হবে সে পরিমাণ মর্ডানার টিকা এখনও এসে পৌঁছায়নি। খুলনা জেনারেল হাসপাতালম পুলিশ হাসপাতাল, খুমেক হাসপাতাল, শহীদ শেখ আবু নাসের হাসপাতাল ও খালিশপুর তিতুমির নেভি ক্যাম্পে মর্ডানার টিকা প্রদান করা হচ্ছে।

সভায় কেসিরি সচিব মোহাম্মদ আজমুল হক, কাউন্সিলর আনিছুর রহমান বিশ্বাস, কাজি তালাত হোসেন, আব্দুস সালাম, শেক আব্দুর রাজ্জাক, কবির হোসেন কবু মোল্লা, শেখ মোঃ গাউসুল আযম, জেডএ মাহমুদ ডন, হাফিজুর রহমান, মোজাফ্ফর রশিদী রেজা, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, আমেনা হালিম বেবী, কনিকা রানী সহা, মেমোরী সুফিয়া রহমান শুনু, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা জেলায় আজ বৃহস্পতিবার পাঁচ হাজার তিনশত ৬৬ জন করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে পুরুষ দুই হাজার নয়শত ৯৭ এবং মহিলা দুই হাজার তিন শত ৯৬ জন। এরমধ্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকায় তিন হাজার একশত ৩০ জন এবং নয়টি উপজেলায় মোট দুই হাজার দুইশত ৩৬ জন করোনা ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন। খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসকল তথ্য জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, কোভিড-১৯ টিকা দেওয়ার জন্য অনলাইনের মাধ্যমে গত ২৭ জুলাই পর্যন্ত আবেদন করেছেন ৩ লাখ ৭৩ হাজার ৯৫৯জন। এরমধ্যে নয়টি উপজেলার গ্রাহক রয়েছেন ২ লাখ ১৬ হাজার ৭২৮। এখন পর্যন্ত ১ম ডোজ টিকা দিয়েছেন ২লাখ ২৯ হাজার ৯১০ জন এবং ২য় ডোজ সম্পন্ন করেছেন ১ লাখ ২৯ হাজার ৬৭জন। মজুদ আছে লক্ষাধিক ডোজ। নগরীতে আবেদন করেছেন ১ লাখ ৫৭ হাজার ২৩১জন।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692