খুলনা, বাংলাদেশ | ১৩ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ | ২৭ মে, ২০২২

Breaking News

  গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন এক হাজার ৪১৩ জন, আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৭০৪ জন

এফএইচআই ৩৬০ এর সাথে কে‌সি‌সির অংশীদারিত্বমূলক সমঝোতা স্মারক সই

নিজস্ব প্রতিবেদক

খুলনা মহানগরীর ইপিআই কর্মসূচিকে সমন্বিত করার লক্ষ্যে পুষ্টি পরিসেবা আধুনিকায়ন ও সম্প্রসারণ করতে যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থা এফএইচআই ৩৬০ (ফ্যামিলি হেলথ ইন্টারন্যাশনাল)-এর সাথে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের এক অংশীদারিত্বমূলক সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে।

আজ রবিবার(১৬ জানুয়ারি) বিকেলে নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়।

সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক-এর উপস্থিতিতে চুক্তিতে কেসিসি’র পক্ষে স্বাক্ষর করেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা লস্কার তাজুল ইসলাম এবং এফএইচআই৩৬০ এর পক্ষে কান্ট্রি রিপ্রেজেন্টেটিভ ডা. নাজমুস শাহার সাদেক।

ইউএসএআইডি’র (ইউনাইটেড এস্টেটস এজেন্সী ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট) অর্থায়নে সংস্থার স্ট্রেনদিং মাল্টিসেক্টরাল নিউট্রেশন প্রোগ্রামিং থ্রু ইমপ্লিমেন্টেশন সাইন্স একটিভিটি প্রজেক্ট-এর আওতায় সংস্থাটি খুলনা মহানগরীতে পুষ্টি বিষয়ক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করবে।

উল্লেখ্য, কমিউনিটি ম্যানেজমেন্ট (সিএমএএম) প্রোগ্রামের মাধ্যমে তীব্র অপুষ্টি নিয়ন্ত্রণে সরকারের প্রচেষ্টাকে সমর্থন করাই এই কার্যক্রমের মূল লক্ষ্য।

কর্মসূচির আওতায় কেসিসি’র বিদ্যমান স্বাস্থ্য কর্মীদের মাধ্যমে দুই বছরের কম বয়সী শিশুদের উচ্চতা, ওজন এবং মধ্য বাহুর পরিধি পরিমাপ করে শিশুদের পুষ্টির অবস্থা যাচাই করা, ছোট শিশুকে খাওয়ানোর বিষয়ে কাউন্সেলিং প্রদানের জন্য প্রশিক্ষণ প্রদান ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম সরবরাহ করা হবে।

এছাড়া এ কার্যক্রমে যোগদানে অনুপস্থিত এমন শিশু লালন-পালনকারীদের সেবায় যুক্ত করতেও কাজ করা হবে। পরিসেবা প্রদানের নির্ধারিত সময়সূচিতে মোবাইল ম্যাসেজের মাধ্যমে সতর্ক করাসহ শিশু স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সম্পর্কিত জরুরী অনুসন্ধানের জন্য একটি টোল-ফ্রি টেলিফোন পরিসেবাও চালু থাকবে।

চুক্তি স্বাক্ষর অনুষ্ঠানে সিটি মেয়র বলেন, বাংলাদেশে শিশুর অপুষ্টি একটি গুরুতর চ্যালেঞ্জ। এ চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা, মা ও শিশু পুষ্টির চাহিদা পূরণে বিভিন্ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করছেন। সকল শিশুকে পুষ্টি কার্যক্রমের আওতায় আনতে সরকার জাতীয় পুষ্টি নীতিমালা প্রণয়ন করেছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা এ কাজে সহযোগিতার হাত বাড়িয়েছে। এ সকল কার্যক্রম শিশুদের অপুষ্টি কমাতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে এবং সরকারের পুষ্টি কার্যক্রমকে আরো ত্বরান্বিত করবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সংস্থাগুলোকে কেসিসি’র পক্ষ থেকে সম্ভব সব ধরণের সহযোগিতা দেয়া হবে বলে সিটি মেয়র অভিমত ব্যক্ত করেন।

কেসিসি’র সচিব মো: আজমুল হক, প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) ডা. স্বপন কুমার হালদার, প্রকল্পের পুষ্টি বিষয়ক উপদেষ্টা ডা. নাসরিন জাহানসহ প্রকল্পের কর্মকর্তাগণ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা গেজেট / এস আই




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692