খুলনা, বাংলাদেশ | ১০ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২৪ জুন, ২০২৪

Breaking News

  পাবনা সদর উপজেলার নতুন গোয়াইলবাড়ি এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু
  ব্লগার নাজিমুদ্দিন হত্যা : মেজর জিয়াসহ ৪ আসামির বিচার শুরু, ৫ জনকে অব্যাহতি

আইনজীবীকে মারধর; আ’লীগ সভাপতির বিরূদ্ধে মানববন্ধন ও সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর

যশোরে আইনজীবীকে লাঞ্চিত ও গায়ে হাত তোলার ঘটনায় বিক্ষুদ্ধ হয়ে উঠেছে জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্যরা। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল-২ এর পিপি মোস্তাফিজুর রহমান একজন আইন কর্মকর্তা হয়ে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতির হাতে মারধরের শিকার হবেন, এটা তারা কিছুতেই মেনে নিতে পারছেন না।

এ ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টায় জেলা আইনজীবী সমিতির-১ নম্বর ভবনের সামনে আইনজীবীরা মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। সমাবেশ থেকে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে প্রশাসনের কাছে বিচার দাবি করা হয়।

সমাবেশে আইনজীবীরা বলেন, একজন আইন কর্মকর্তার গায়ে হাত দিয়ে আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন উদ্ধত্য দেখিয়েছেন। যা সকল সীমাকে অতিক্রম করেছে। এ কাজের মাধ্যমে তিনি ফৌজদারী অপরাধী হিসেবে নিজেকে শনাক্ত করেছেন। এ ঘটনায় আমরা লজ্জিত ও ব্যথিত।

আইনজীবী নেতৃবৃন্দ বলেন, পুলিশ ফাঁড়ির মধ্যেই একজন আইন কর্মকর্তাকে লাঞ্চিত করা হবে। তাকে মারপিট করা হবে। এটা কারো কাম্য নয়। এ আঘাত একজন আইনজীবীর গায়ে লাগেনি। পুরো দেশের আইনজীবীদের অস্তিত্বে আঘাত হেনেছ। এ ঘটনায় তারা দোষী ব্যক্তির সুষ্ট বিচার চান। অন্যথায় আরও কঠোর কর্মসূচির ডাক দেয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেন। এছাড়া এ ঘটনায় আদালতে আজই মামলা করা হবে বলে জানান জেলা আইনজীবীর সমিতির সভাপতি আবু মোর্তজা ছোট।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন যশোরের জেলা ও দায়রা জজ আদালতের পিপি এম. ইদ্রিস আলী, সিনিয়র আইনজীবী নজরুল ইসলাম, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি আবু মোর্তজা ছোট। মানববন্ধন পরিচালনা করেন জেলা আইনজীবী সমিতির দায়িত্বপ্রাপ্ত সাধারণ সনম্পাদক জুলফিকার আলী জুলু। উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী রফিকুল ইসলাম, সেতারা বেগম, সাজ্জাদ মোস্তফা রাজা, নজরুল ইসলাম বকুল, আমিনুর রহমান হিরু, সৈয়দ কবীর হোসেন জনি প্রমুখ।

এদিকে, মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের পর আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন নিজেই জেলা আইনজীবী সমিতির ভবনে যান। এসময় তিনি অ্যাড. মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলের বিরুদ্ধে পাল্টা অভিযোগ ছোড়েন। এছাড়া, তিনি দুপুরে প্রেসক্লাব যশোরের সামনে মানববন্ধনের ডাক দেন।

উল্লেখ্য, সোমবার শহরের মুজিব সড়কের ফুটপাতের দোকান বসানোকে কেন্দ্র করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুন্যাল-২ এর পিপি মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলকে লাঞ্জিত করেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন। এ ঘটনায় জেলা আইনজীবী সমিতিতে লিখিত অভিযোগ দেন তিনি। এরপর সমিতির পক্ষ থেকে এ মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশের ডাক দেন আইনজীবী সমিতির নেতৃবৃন্দ।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!