খুলনা, বাংলাদেশ | ১০ বৈশাখ, ১৪৩১ | ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

Breaking News

১৪ বছর পর যশোর মহিলা সংস্থা পেল নতুন চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর

জাতীয় মহিলা সংস্থা যশোরের নতুন চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পেয়েছেন সদর উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জ্যোৎন্সা আরা মিলি। তার সাথে নিয়োগ পেয়েছেন ৪ নারী নেত্রী। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে গত ২১ মার্চ মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সহকারী সচিব দিলিপ কুমার নাথ স্বাক্ষরিত এক পত্রে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

এর আগে প্রায় এক যুগ ধরে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লাইজু জামান। দায়িত্বে থাকাকালে লাইজু জামানের বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে অনিয়ম ও দুর্নীতির লিখিত অভিযোগ দেয় জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের তৎকালীন কমিটির নেতৃবৃন্দ।

প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়েছে, জাতীয় মহিলা সংস্থার আইন ১৯৯১ সালের ৯ নং আইনের ১০ ধারায় ৩ উপধারা মোতাবেক জেলা প্রশাসন যশোরের সুপারিশে চেয়ারম্যানসহ পাঁচ সদস্যকে মনোনীত করা হয়েছে। এতে নতুন চেয়ারম্যান করা হয়েছে জ্যোৎস্না আরা মিলিকে। আর সদস্য হলেন, অ্যাডভোকেট জেসমিন বানু, মাজেদা পারভীন, রোজিনা আক্তার ও নাজমুন নাহার। কমিটির মনোনীত চেয়ারম্যান ও সদস্যরা চলতি বছরের ২১ মার্চ থেকে আগামী দুই বছরের জন্য দায়িত্ব পালন করবেন। তবে শর্তানুযায়ী, কোন কারণ দর্শানো ব্যতিরেকে তাদেরকে পদ থেকে অপসারণ করতে পারবে মন্ত্রণালয়।

উল্লেখ্য, লাইজু জামান ২০০৯ সালের অক্টোবর মাসে সংস্থাটির যশোরের চেয়ারম্যান হিসাবে নিয়োগ পান। এরপর থেকে তিনি একটানা প্রায় ১৪ বছর চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

নতুন চেয়ারম্যান নিয়োগের বিষয়ে জানতে চাইলে লাইজু জামান বলেন, নতুন একজনকে নিয়োগের বিষয়ে শুনেছি। তবে আমি এখনও কোন চিঠি পায়নি। আমি দায়িত্বে থাকাকালীন ভালোভাবে কাজ করেছি। নতুন যিনি দায়িত্ব পেয়েছেন আশা করি ভালোভাবেই দায়িত্ব পালন করবেন।

প্রায় ১৪ বছর দায়িত্ব পালনের বিষয়ে তিনি বলেন, এসব নিয়ে ঘাটাঘাটি করার দরকার নেই।

নতুন নিয়োগ পাওয়া চেয়ারম্যান জ্যোৎন্সা আরা মিলি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যোগ্য মনে করায় আমাকে আগামী দুই বছরের জন্য নিয়োগ দিয়েছেন। আশা করি সুনামের সঙ্গে কাজ করবো।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!