খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ | ১৯ মে, ২০২২

Breaking News

  ২২ মে পর্যন্ত বাড়ানো হলো সরকারি-বেসরকারি হজযাত্রী নিবন্ধনের সময়
  সংসদের বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন

চার মাদ্রাসাছাত্র নিহতের ঘটনায় তিন দিনেও আটক হয়নি ঘাতক ট্রাক ও চালক

নিজস্ব প্রতিবেদক

সড়ক দুর্ঘটনার তিন দিন পার হলেও এখনও পর্যন্ত ঘাতক ট্রাক ও চালককে আটক করতে পারেনি পুলিশ। এ ঘটনায় থানায় কোন মামলা হয়নি। তবে সড়ক দুর্ঘটনার প্রতিবাদে ফকিরহাটের আলহেরা মাদ্রাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন এবং বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। অপরদিকে নিহত ছাত্রদের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে সামাজিক সংগঠন বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসি।

মঙ্গলবার সকাল ১১ টার দিকে বাগেরহাট নওয়াপড়াস্থ আলহেরা আলীম মাদ্রাসার শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা বাগেরহাট-খুলনা মহাসড়কে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেন। সেখানে বক্তারা ঘাতক ডাম্পার ট্রাকের চালক ও হেলপারকে আটকের জোর দাবি জানান।

বক্তৃতা করেন মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম, উপাধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ মোমতাজুল ইসলাম, সহকারী শিক্ষক হাওলাদার আব্দুল হাকিম, মাওলানা নাসির উদ্দিন, ছাত্র হাফেজ মো. আবু বক্কর ও হাফেজ মো. হাবিবুল্লাহ প্রমুখ।

ফকিরহাটের সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ছাত্রদের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক, শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং মরহুমদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন বৃহত্তর আমরা খুলনাবাসীর নেতৃবৃন্দ।

বিবৃতিদাতারা হলেন, সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আরিফ, সিনিয়র সহ-সভাপতি শেখ হেমায়েতুল ইসলাম, ডা. সৈয়দ মোসাদ্দেক হোসেন বাবলু, সহ-সভাপতি কবি সৈয়দ আলি হাকিম, কাউন্সিলর মাজেদা খাতুন, ডা. মো.আব্দুস সালাম, শেখ হেদায়েত হোসেন হেদু, মোসাদ্দেক হোসেন বকুল ও মো. কামরুল ইসলাম কামু, সাধারণ সম্পাদক এস এম মাহবুবুর রহমান খোকন, যুগ্ম-সম্পাদক মোহাম্মদ আলী, এম এ জলিল, সাংগঠনিক সম্পাদক শাকিল আহমেদ রাজা, আজাদুল হক আজাদ, কামরুল ইসলাম ভুট্রো, শেখ শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গত ৮ জানুয়ারি খুলনার আলীয়া মাদ্রাসায় আন্তর্জাতিক ক্বেরাত সম্মেলনে অংশগ্রহণ করে শনিবার গভীর রাতে বাড়ী ফেরার পথে টাউন নওয়াপাড়ার আলফা এগ্রো এক্রোসরীজ এর সামনে আসলে ডাম্পার ট্রাক ও মাহিন্দার মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময়ে মাহিন্দ্রায় থাকা তিন শিক্ষার্থীর ঘটনাস্থলে মৃত্যু হয। অপরজনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নেওয়ার পথে মারা যায়।

এ ব্যাপারে কাটাখালী হাইওয়ে থানা পুলিশের অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) মোহাম্মদ আলীর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ঘটনায় ভুক্তভোগীদের কেউ এখনও থানায় মামলা করতে আসেনি। ডাম্পার ট্রাকটিকে শনাক্ত করা সম্ভব হয়নি। আটকের জোর চেষ্টা চলছে।

খুলনা গেজেট/ টি আই




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692