খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৯ জুন, ২০২৪

Breaking News

  চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্র বন্দরকে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত : আবহাওয়া অফিস
  কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে  পাহাড়ধসে নিহত বেড়ে ১১

সাতক্ষীরা পৌরসভার একতরফা পানির মূল্য বৃদ্ধিতে প্রতিবাদ

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা

নাগরিকদের আপত্তি উপেক্ষা করে সাতক্ষীরা পৌরসভার একতরফা পানির মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানিয়েছে সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটি। শনিবার (১০ জুন) সকাল ১০টায় জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক এড. শেখ আজাদ হোসেন বেলালের সভাপতিত্বে সংগঠনের এক সভায় এই প্রতিবাদ জানানো হয়।

সভায় নাগরিক নেতৃবৃন্দ বলেন, সাতক্ষীরা পৌরসভার প্রায় ১৬ হাজার পানি গ্রাহকের অনেকেই বছরের পর বছর এক ফোটাও পানি পায় না। অর্ধেকের বেশি গ্রাহক অনিয়মিতভাবে পানি পেলেও তা ব্যবহার অযোগ্য। পৌরসভার পানি সরবরাহ শাখার নিয়মিত ও মাস্টাররোলের প্রায় ৬০ জন কর্মচারীর অধিকাংশই শুধু বসে বসে বেতনই নেন না বরং অনেকে পানির তালিকা বর্হিভূত ভূয়া গ্রাহকদের কাছ থেকে মাসোহারা আদায়ে ব্যস্ত থাকেন। ইতিপূর্বে সাতক্ষীরা পৌরসভা আয়োজিত পানির মূল্য বৃদ্ধি সংক্রান্ত গণশুনানীতে অংশগ্রহণকারী ২৫ জন বক্তার ২৪ জনই পানির মূল্য বৃদ্ধির বিরোধীতা করেছিলেন।

সভায় নাগরিক নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, সাতক্ষীরা পৌর এলাকার ১০ ইউনিটের একটি ৫তলা ভবনের এক ইঞ্চি পানির লাইনের মাসিক বিল এবং দুই রুম বিশিষ্ঠ একটি টিনসেডে বাড়িরও পানির বিল একই হারে নির্ধারিত হয়ে আসছে। বড় ভবনের মালিকরা মেশিন লাগিয়ে পানি টেনে নেওয়ায় যাদের মেশিন নেই তারা পৌরসভার সরবরাহকৃত পানি থেকে বঞ্চিত হয়। গণশুনানীতে এসব সমস্যার সমাধান করে সুপেয় ও ব্যবহারযোগ্য পানির নিয়মিত সরবরাহ নিশ্চিত করে পুনরায় গণশুনানীর মাধ্যমে বিল বৃদ্ধির বিষয়টি উপস্থাপন করার আহবান জানিয়েছিলেন। কিন্তু নাগরিকদের সেসব পরামর্শ ও দাবি উপেক্ষা করে মন্ত্রণালয়ের অনুমোদন ছাড়াই এ ধরনের পানির বিল বৃদ্ধির প্রতিবাদ জানান নাগরিক কমিটির সভায় উপস্থিত নেতৃবৃন্দ।

সভায় সাতক্ষীরা পৌরসভার বেহাল সড়কগুলো সংস্কারে জরুরি ভিত্তিতে কিছু পদক্ষেপ নেওয়ায় পৌর কতৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানানোর পাশাপাশি বর্ষা মৌসুমের পূর্বেই ড্রেনেজ ব্যবস্থার উন্নয়নসহ নাগরিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিত করার দাবি জানানো হয়। এছাড়া গত ৬ জুলাই জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদ-একনেকের বৈঠকে “সাতক্ষীরা সড়ক ও সিটি বাইপাস সড়ককে সংযুক্ত করে সংযোগ সড়কসহ তিনটি রিং রোড নির্মাণ” প্রকল্প অনুমোদন করায় ধন্যবাদ জানানো হয়।

সভায় দেশের চলমান উন্নয়নের স্রোতধারায় সাতক্ষীরা জেলাকে যুক্ত করতে নাভারণ থেকে মুন্সিগঞ্জ পর্যন্ত ব্রডগেজ রেল লাইন নির্মাণের দুটি প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দ, সাতক্ষীরার কালিগঞ্জের বসন্তপুর নৌবন্দর স্থাপন, সাতক্ষীরা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, সাতক্ষীরা অর্থনৈতিক অঞ্চল, সাতক্ষীরায় আন্তর্জাতিক মানের ক্রীড়া কমপ্লেক্স নির্মাণসহ সরকার গৃহীত বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে অর্থ বরাদ্দের দাবি জানানো হয়।

সভায় বক্তব্য রাখেন, প্রফেসর এস এ এম ওয়াহেদ, প্রফেসর পবীত্র মোহন দাস, এড. আজাহারুল ইসলাম, ওবায়দুস সুলতান বাবলু, শেখ হারুণ অর রশিদ, এড. ওসমান গনি, লায়লা পারভীন সেঁজুতি, প্রভাষক ইদ্রিশ আলী, শেখ সিদ্দিকুর রহমান, জোৎন্সা দত্ত, এড. মুনির উদ্দীন, জিএম মনিরুজ্জামান, কমরেড আবুল হোসেন, আলী নুর খান বাবুল, মো. আব্দুস সামাদ, মো. মফিজুর রহমান, এড. আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।

বক্তারা সাতক্ষীরাকে প্রথম শ্রেণির জেলায় উন্নীত করতে পাটকেলঘাটাকে উপজেলা ঘোষণা, পৃথক উপকূলীয় বোর্ড গঠন ও বাজেটে বিশেষ বরাদ্দসহ সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির ২১ দফা বাস্তবায়নে সরকারের নিকট জোর দাবি জানান।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!