খুলনা, বাংলাদেশ | ৩ ভাদ্র, ১৪২৯ | ১৮ আগস্ট, ২০২২

Breaking News

  কমছে ডলারের দাম, নেমেছে ১১০ টাকার নিচে
  গাজীপুরে প্রাইভেটকারের ভেতর থেকে শিক্ষক দম্পতির মরদেহ উদ্ধার
  ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন দুই হাজার ১৪ জন ও আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ৫৫ হাজার ৬৯৩ জন

শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় মুকুল বোসকে চির বিদায়

নিজস্ব প্রতি‌বেদক, গোপালগঞ্জ

শ্রদ্ধা ও ভালবাসায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের কৃতি সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধা মুকল বোসকে মুকসুদপুরবাসী চির বিদায় জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার(৫ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯ টায় প্রয়াত বর্ষিয়ান আওয়ামী লীগ নেতা মুকুল বোসের মরদেহ মুকসুদপুর সরকারি কলেজ চত্বরে আনা হয়।

সেখানে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সংসদ সদস্য লেঃ কর্ণেল (অব) মুহাম্মদ ফারুক খানের পক্ষে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগ, উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, পৌরসভা, পাক্ষিক মুকসুদপুর সংবাদ সহ বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে কফিনে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর প্রিয় নেতার প্রতি সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানান। পরে মুকসুদপুর থানার পুলিশে একটি চৌকস দল গার্ড অব অর্নার প্রদান করে।

এ সময় মুকসুদপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাড. আতিকুর রহমান মিয়া, সাধারণ সম্পাদক রবিউল আলম সিকদার, উপজেলা চেয়ারম্যান মোঃ কাবির মিয়া, বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির পরিচালক আশরাফুল আলম পপলু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) অমিত কুমার সাহা, ওসি (তদন্ত) আমিনুর রহমান, নব নির্বাচিত পৌর মেয়র আশরাফুল আলম শিমুল, আওয়ামী লীগ নেতা আশরাফ আলী আশু, শ্যামল বোস, সিরাজুল ইসলাম মিয়া, সাঈদুর রহমান, মোঃ ছাব্বির খান, জাহিদুর রহমান, মোঃ হায়দার হোসেন, সমর রায় চৌধূরী মিন্টু সহ আওয়ামী লীগ ও সহযোগি সংগঠনের বিপুল সংখ্যক নেতা কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পরে মুকুল বোসের মরদেহ নেয়া হয় মুকসুদপুরের গোহাল টিসিএল উচ্চ বিদ্যালয়ে। সেখানে তার প্রতি সর্বস্তরের মানুষ শ্রদ্ধা জানান। এ বিদ্যালয়ে তিনি পড়াশোনা করেছেন।

এরপর মুকসুদপুরের মনিয়াজোড়া গ্রামের নিজ গ্রামের বাড়িতে নেয়া হয় মুকুল বোসের মরদেহ। সেখানে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে দুপুরে ঢাকার উদ্দেশ্যে লাশ নিয়ে রওনা হন পরিবারের সদস্যরা। আজ মঙ্গলবার ঢাকায় এ নেতার মরদেহের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

মুকুল বোস (৬৮) হার্ট ও কিডনি জটিলতা নিয়ে গত ২ জুলাই ভারতের চেনাই এ্যাপোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তিনি স্ত্রী, ১ মেয়ে ও ১ ছেলে রেখে গেছেন।

খুলনা গেজেট/ এস আই




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692