খুলনা, বাংলাদেশ | ১৫ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ | ৩০ নভেম্বর, ২০২০

Breaking News

  ঢাকাকে ৩৭ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে বঙ্গবন্ধু কাপ ক্রিকেটে জয়ে ফিরলো খুলনা
  ভাস্কর্যকে মূর্তির সঙ্গে তুলনা উসকানির অপচেষ্টা মাত্র : তথ্যমন্ত্রী
  করোনার টিকার দায়িত্ব সশস্ত্র বাহিনীকে দেওয়ার দাবি বিএনপির
  সাড়ে তিন হাজার কোটি টাকারও বেশি অর্থ আত্মসাৎ করে কানাডায় পালিয়ে যাওয়া পিকে হালদারের বিরুদ্ধে সব মামলার নথি চেয়েছে ইন্টারপোল

রাজশাহী রেড ক্রিসেন্টের ত্রাণের বিপুল পরিমাণ মালামাল যশোরে উদ্ধার

যশোর প্রতিনিধি

রাজশাহী রেড ক্রিসেন্টের বিপুল পরিমাণ মালামাল কালোবাজার থেকে উদ্ধার করেছে যশোর জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ। শনিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া বাজারের কয়েকটি স্পটে অভিযান চালিয়ে ডিবি পুলিশ এ মালামাল উদ্ধার করেছে। এসময় ত্রাণের এসব মালামাল কেনার সাথে জড়িত অভিযোগে আজাদ নামে এক ব্যবসায়ীকে আটক করা হয়েছে।

ডিবি পুলিশ সূত্র জানিয়েছে, গত কয়েক মাস আগে রাজশাহী থেকে রেড ক্রিসেন্টের ত্রাণের কমপক্ষে ১৫শ’ বস্তা চাল, ডাল, চিনি, সুজি লোপাট হয়। বিশাল ওই চালান একটি অসাধু চক্রের মাধ্যমে চলে আসে যশোরে। সদর উপজেলার বসুন্দিয়ার পোল্ট্রি ফিড ডিলার আজাদসহ নওয়াপাড়া কেন্দ্রিক কয়েকজন ব্যবসায়ী ওই মালামাল গোপনে কেনেন। বিশেষ সোর্সের মাধ্যমে এসব তথ্য যশোর ডিবি পুলিশের কাছে যায়। এরই প্রেক্ষিতে মাঠে নামে ডিবি পুলিশ।

ডিবির অফিসার ইনচার্জ সৌমেন দাসের নেতৃত্বে একটি টিম শনিবার সকাল থেকে নওয়াপাড়া বাজারে অভিযান চালায়। এসময় আটক হয় ব্যবসায়ী আজাদ। তার নওয়াপাড়া প্রেমবাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে ৫০ বস্তা ডাল, চিনি ও সুজি উদ্ধার করে। এসময় আটক আজাদ রেড ক্রিসেন্টের মালামাল কেনার কথা স্বীকার করেন। এছাড়া বিকিকিনি চক্রের কয়েকজনের নামও বলেন। এসময় ডিবির ওই টিম নওয়াপাড়ার প্রেমবাগ এলাকায় আরো কয়েকটি ডেরায় অভিযান চালায়।

এ ব্যাপারে গোয়েন্দা শাখার (ডিবি) অফিসার ইনচার্জ সৌমেন দাস বলেন, অবিশ্বাস্য হলেও সত্য রাজশাহী থেকে আনা রেড ক্রিসেন্টের মালামালগুলোর পরিমাণ ছিল ১৫শ’ বস্তা। অভিযানে ৫০ বস্তা উদ্ধার হয়েছে। আরো উদ্ধার ও আটকে অভিযান চলমান রয়েছে। তবে কারা ওই মালামাল বিক্রি করেছে বা এ কাজে কারা জড়িত এ ব্যাপারে খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। এ বিষয়ে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে আগামীূকাল রোববার প্রেস ব্রিফিং করা হবে বলে তিনি জানান।

খুলনা গেজেট/এনএম



আরও সংবাদ




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন



এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692