খুলনা, বাংলাদেশ | ২১ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৫ জুলাই, ২০২২

Breaking News

  কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আরফানুল হক রিফাত শপথ নিয়েছেন
  পিকে হালদারকে আরও ১৫ দিনের জেল হেফাজতে পাঠিয়েছেন কলকাতার স্পেশাল সিবিআই কোর্ট-৩
  গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে ৭০২ জনের মৃত্যু হয়েছে ও নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ২৯ হাজার ৬৬ জন

রাজবাড়ী-শরীয়তপুর-মাদারীপুরে বন্যার পূর্বাভাস

গেজেট ডেস্ক

রাজবাড়ী, শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের নিম্নাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড (বাপাউবো)।

বৃহস্পতিবার (২৩ জুন) পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার (আজ সকাল ৯টা থেকে আগামীকাল সকাল ৯টা পর্যন্ত) বন্যা পূর্বাভাস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। পানি উন্নয়ন বোর্ডের বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্রের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. আরিফুজ্জামান ভূঁইয়া বিজ্ঞপ্তিতে স্বাক্ষর করেছেন।

পূর্বাভাসে পানি উন্নয়ন বোর্ড জানায়, গঙ্গা-পদ্মা ছাড়াও দেশের প্রধান নদ-নদীগুলোর পানির সমতল হ্রাস পাচ্ছে। আবহাওয়া অধিদপ্তরের গাণিতিক মডেলভিত্তিক পূর্বাভাস অনুযায়ী, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় তিস্তা বেসিন ব্যতীত দেশের অভ্যন্তরে এবং উজানের বিভিন্ন অংশে ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা কম।

পানি উন্নয়ন বোর্ড আরও জানায়, আগামী ৪৮ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র-যমুনা, ধরলা, দুধকুমার এবং দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সকল প্রধান নদ-নদীগুলোর (তিতাস ব্যতীত) পানি সমতল হ্রাস অব্যাহত থাকতে পারে। অপরদিকে গঙ্গা-পদ্মা নদীর পানি সমতল স্থিতিশীল থাকতে পারে।

এছাড়া, আগামী ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টায় ভারতের হিমালয় পাদদেশীয় পশ্চিমবঙ্গে (জলপাইগুড়ি, সিকিম) মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস রয়েছে। এর ফলে ওই সময়ে তিস্তা নদীর পানি সমতল বৃদ্ধি পেয়ে বিপৎসীমার কাছাকাছি অবস্থান করতে পারে।

পূর্বাভাসে জানানো হয়, আগামী ২৪ ঘণ্টায় দেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলের সিলেট, সুনামগঞ্জ ও নেত্রকোনা জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। অপরদিকে কিশোরগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বন্যা পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকতে পারে।

একই সময়ে কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, বগুড়া, সিরাজগঞ্জ, টাঙ্গাইল ও জামালপুর জেলার বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হতে পারে। তবে রাজবাড়ী, শরীয়তপুর ও মাদারীপুর জেলার নিম্নাঞ্চলে স্বল্পমেয়াদী বন্যা পরিস্থিতি সৃষ্টি হতে পারে।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692