খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ | ১৯ মে, ২০২২

Breaking News

  ২২ মে পর্যন্ত বাড়ানো হলো সরকারি-বেসরকারি হজযাত্রী নিবন্ধনের সময়
  সংসদের বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন

যে কারণে বিধ্বস্ত হয় ভারতের প্রতিরক্ষা প্রধানের বিমান

গেজেট ডেস্ক

ভারতের তামিলনাড়ুতে সামরিক হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে দেশটির প্রতিরক্ষা প্রধান বিপিন রাওয়াত ও তার স্ত্রীসহ ১৪ জন নিহত হন। দেশটির তিন বাহিনীর গঠিত তদন্ত কমিটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর কাছে ঘটনার তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, মেঘলা আবহাওয়ায় পাইলটের ভুলে বিপিন রাওয়াতকে বহনকারী হেলিকপ্টারটি বিধ্বস্ত হয়েছিল। গত ৮ ডিসেম্বর তামিলনাড়ুতে কপ্টারটি বিধ্বস্ত হয় ।

খবরে বলা হয়েছে, বুধবার তিন বাহিনীর গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্তের তথ্য–উপাত্তগুলো প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের কাছে জমা দিয়েছেন।

তদন্তে বলা হয়েছে, দক্ষিণ তামিল নাড়ু রাজ্যের নীল গিরির কুনর জেলা হঠাৎ মেঘে ঢেকে যায়। ফলে মিলিটারি কপ্টারটি অনিচ্ছাকৃত কারণে পাহাড়ের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে বিধ্বস্ত হয়।

বিপিন রাওয়াতকে যে হেলিকপ্টারে বহন করা হচ্ছিল, সেটি ভারতীয় বিমানবাহিনীর অন্যতম নির্ভরযোগ্য হেলিকপ্টার। শুধু সামরিক কর্মকর্তা নয়, দেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী এমআই-১৭ভি৫ হেলিকপ্টার ব্যবহার করে থাকেন।

এনডিটিভির দেওয়া তথ্য অনুসারে, রাশিয়া থেকে হেলিকপ্টারটি আমদানি করা হয়েছিল। তবে ভারতের জন্য এটি বিশেষভাবে নকশা করে তৈরি করা হয়েছিল। ২০১২ সালে ভারতের বিমানবাহিনীতে হেলিকপ্টারটি যুক্ত হয়। দেখতে এ হেলিকপ্টার পুরোনো মনে হলেও কাজে বেশ আধুনিক। এই হেলিকপ্টারে যে রাডার রয়েছে, তা দিয়ে চারপাশের ৬০০ কিলোমিটারে আবহাওয়া সম্পর্কে জানা যায়। এতে ব্যবহার করা হয় দুটি ইঞ্জিন।

এমআই-১৭ভি৫ হেলিকপ্টারটি নজরদারি ও শত্রুর ওপর হামলা চালাতেও ব্যবহার করা হয়। এ হেলিকপ্টার থেকে ক্ষেপণাস্ত্র পর্যন্ত নিক্ষেপ করা যায়। মেশিনগানের মতো অস্ত্রও ব্যবহার করা হয় হেলিকপ্টারটিতে।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692