খুলনা, বাংলাদেশ | ২১ আষাঢ়, ১৪২৯ | ৫ জুলাই, ২০২২

Breaking News

  কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র আরফানুল হক রিফাত শপথ নিয়েছেন
  পিকে হালদারকে আরও ১৫ দিনের জেল হেফাজতে পাঠিয়েছেন কলকাতার স্পেশাল সিবিআই কোর্ট-৩
  গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে ৭০২ জনের মৃত্যু হয়েছে ও নতুন করে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন ৩ লাখ ২৯ হাজার ৬৬ জন

মানুষকে অভুক্ত রেখে পদ্মা সেতু নিয়ে উৎসব করছে সরকার : ফখরুল

গেজেট ডেস্ক

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অভিযোগ করে বলেছেন, দেশের মানুষকে অভুক্ত রেখে সরকার পদ্মা সেতু নিয়ে উৎসব করছে। আমার মানুষ না খেয়ে আছে, বিনা চিকিৎসায় আছে। অথচ তারা পদ্মা সেতু নিয়ে ব্যস্ত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সিলেটের জৈন্তাপুরে বন্যাদুর্গত এলাকা পরিদর্শন ও বন্যার্তদের ত্রাণ দেওয়ার সময় এ অভিযোগ করেন বিএনপির এ নেতা।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, সিলেটের ৩০ লাখ বানভাসি মানুষের জন্য মাত্র ৬০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অথচ পদ্মা সেতু উদ্বোধনে শত কোটি টাকা খরচ করছে। সারাদেশের মানুষ যখন দুর্যোগে হাহাকার করছে, সরকার তখন পদ্মা সেতু নিয়ে উৎসবে মেতেছে।

একই উপজেলার খাজার মোকাম উচ্চ বিদ্যালয়ে সিলেট জেলা বিএনপির উদ্যোগে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ফখরুল বলেন, বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়াতে সরকার ব্যর্থ। লাখ লাখ মানুষ ত্রাণের জন্য হাহাকার করলেও প্রধানমন্ত্রী গুটিকয়েক মানুষকে ত্রাণ দিয়ে দায়িত্ব শেষ করেছেন।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ২০০৪ সালের বন্যায় তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া মানুষের দ্বারে দ্বারে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন। কিন্তু বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হেলিকপ্টারে করে ঘুরে গেছেন।

ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু।

তিনি বলেন, বিএনপি জনগণের দল বলেই জনগণের কাছে এসেছে। আওয়ামী লীগ জনগণের তোয়াক্কা করে না বলে এই দুর্যোগেও তারা জনগণের পাশে নেই।

জৈন্তাপুরে ত্রাণ বিতরণকালে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট এমরান আহমদ চৌধুরীসহ দলের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বৃহস্পতিবার জৈন্তাপুরে ত্রাণ বিতরণে যাওয়ার আগে সড়কপথে সিলেটে হযরত শাহজালালের (রহ.) মাজার জিয়ারত করেন বিএনপির শীর্ষ দুই নেতা।

 

খুলনা গেজেট/ আ হ আ




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692