খুলনা, বাংলাদেশ | ১৭ আষাঢ়, ১৪২৯ | ১ জুলাই, ২০২২

Breaking News

  গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১ হাজার ৩৮০ জন ও আক্রান্ত হয়েছেন ৭ লাখ ১৯ হাজার ৪৮০ জন

মধ্যাহ্ন বিরতির পর ছন্দপতন, আউট লিটন-তামিম

ক্রীড়া প্রতি‌বেদক

গেল এক বছর ধরে সাদা পোশাকে দারুণ সময় পার করছেন লিটন দাস। এ বছরের শুরুতেই নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে হাঁকিয়েছিলেন সেঞ্চুরি। সেই ছন্দ ধরে রেখে এবার শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দারুণ ব্যাট করছিলেন। কিন্তু সেঞ্চুরির দেখা পেলেন না আজ। লাঞ্চ বিরতির পর ৮৮ রানের মাথায় আউট হয়ে সাজঘরে ফিরলেন ডানহাতি এই ব্যাটার।

এরপর ব্যাট করতে নেমে হতাশা দেখতে হলো তামিম ইকবালকেও। গতকাল ১৩৩ রান করে বিশ্রামে যাওয়া তামিম উইকেটে নেমেই আউট হয়ে গেলেন। ২১৮ বলে ১৩৩ রানেই শেষ হলো তাঁর ইনিংস।

৩১৮ রান নিয়ে আজ টেস্টের চতুর্থ দিনের খেলা শুরু করেছে বাংলাদেশ। লিটন ও মুশফিকের শতরানের জুটিতে সেই রান এখন সাড়ে তিনশ ছাড়িয়েছে। প্রথম ইনিংসে লিড পাওয়ার খুব কাছাকাছি মুমিনুল হকের দল।

এর আগে সাগরিকায় বিনা উইকেটে ৭৬ রান নিয়ে গতকাল তৃতীয় দিন শুরু করে বাংলাদেশ। প্রথম সেশনে অবিচ্ছেদ্য থেকে জুটি অক্ষত রাখেন তামিম ও জয়। দুজনেই এই সেশনে তুলে নেন হাফসেঞ্চুরি।

৩৯ রানে দিন শুরু করে দিনের পঞ্চম ওভারেই হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন তামিম। অফস্পিনার রমেশ মেন্ডিসকে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে পঞ্চাশের দেখা পেয়ে যান বাঁহাতি ওপেনার। ক্যারিয়ারের ৩২তম টেস্ট হাফসেঞ্চুরি করতে তামিম খেললেন ৭৩ বল।

তামিমের সঙ্গে থাকা জয়ও পেয়েছেন হাফসেঞ্চুরির দেখা। আসিথা ফার্নান্দোর বল লেগ সাইডে পাঠিয়ে দুই রান নিয়ে পঞ্চাশ স্পর্শ করেন জয়। হাফসেঞ্চুরি পেতে জয় খেলেন ১১০ বল।

হাফসেঞ্চুরিতে দুই ওপেনার প্রথম সেশন ভালোভাবে পার করেন। কিন্তু লাঞ্চ বিরতির পর হঠাৎ ছন্দ হারালেন জয়। দ্বিতীয় সেশনের শুরুতেই ফার্নান্দোর ফাঁদে পড়ে বিদায় নিতে হলো তরুণ এই ওপেনারকে। ১৪২ বলে ৫৮ রান করে আউট হয়েছেন জয়।

এরপর উইকেটে এসে টিকলেন না নাজমুল হোসেন শান্ত। ২ রানেই তাঁকে বিদায় করেছে লঙ্কানরা। আউট হয়ে ফিরেছেন অধিনায়ক মুমিনুল হকও। প্রথম সেশন দারুণ কাটানোর পর দ্বিতীয় সেশনে হঠাৎ ছন্দপতন হয় বাংলাদেশের। এই এক সেশনে তিন উইকেট হারায় মুমিনুল হকের দল।

কিন্তু স্রোতের বিপরীতে ছিলেন তামিম। উইকেটে থিতু হয়ে তুলে নেন সেঞ্চুরি। লঙ্কান পেসার আসিথা ফার্নান্দোকে পুল করে বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৯৫ থেকে ৯৯-এর ঘরে যান তামিম। এর পরের বল লেগ সাইডে পাঠিয়ে এক রান নিয়ে পেয়ে যান শতকের দেখা। শতক হাঁকাতে বাঁহাতি ওপেনারের লেগেছে ১৬২ বল। এর মধ্যে হাঁকিয়েছেন ১২টি বাউন্ডারি। সেঞ্চুরির পর আরো ৩৩ রান যোগ করে বিশ্রামে যান তিনি।

তার আগে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে প্রথম ইনিংসে স্কোরবোর্ডে ৩৯৭ রান তুলেছে শ্রীলঙ্কা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ রান করা ম্যাথুজ খেলেছেন ১৯৯ রানের ইনিংস।




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692