খুলনা, বাংলাদেশ | ২৭ শ্রাবণ, ১৪২৯ | ১১ আগস্ট, ২০২২

Breaking News

  জ্বালানি তেলের আমদানি ব্যয় তহবিল ভেঙে পরিশোধ করছে বিপিসি : বিফ্রিংয়ে বিপিসি চেয়ারম্যান
  কাতার বিশ্বকাপের সূচিতে পরিবর্তন, ২১ নভেম্বরের পরিবর্তে শুরু হবে ২০ নভেম্বর
  বিশ্ববাজারে জ্বালানি তেলের দাম নিম্নমুখী, দেশে এত বেশি বাড়ানো যৌক্তিক নয় : সিপিডি; দাম সমন্বয়ের তাগিদ
  বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটের জামিন বাতিল করে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ

বহিরাগতের অতর্কিত হামলার শিকার ইবি কর্মকর্তা-কর্মচারী

ইবি প্রতিনিধি

বহিরাগতদের দ্বারা হামলার শিকার হয়েছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) ভিসি অফিসের শাখা কর্মকর্তা এস এম খাবিরুল ইসলাম ও ফরেন সেলের দিন হাজিরা কর্মচারী মঞ্জুরুল ইসলাম।

বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে তারা এ অতর্কিত হামলার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এসময় ঘটনা স্থলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য বিরোধী কিছু কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিতি ছিলেন বলে অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগী খাবিরুল ইসলাম বলেন, ‘রেজিস্ট্রার স্যার আমাকে ফোন করে অফিসে ডাকেন। আমি ডরমেটরির সামনে আসলে ক্যাম্পাস পাশ্ববর্তী বসন্তপুর গ্রামের আবু সাইদ ও অপরিচিত একজন এসে আচমকা আমাকে কিল ঘুষি মারতে থাকে। তারা আমার ভগ্নিপতি উপ-রেজিস্ট্রার সাইফুল ইসলামের কাছে টাকা পায় বলে দাবি করে। তখন সেখানে সহকারী রেজিস্ট্রার সেলিম, শাখা কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন, প্রশাসনিক কর্মকর্তা আজিজুল হকসহ বিভিন্ন অফিসের কয়েকজন উপস্থিত ছিলো। এটি একটি পূর্ব পরিকল্পিত ঘটনা বলে আমার মনে হচ্ছে।’

এদিকে বেলা সাড়ে এগারোটার দিকে বিজ্ঞান অনুষদের সামনে মারধরের শিকার হয়েছে ফরেন সেলের দিন হাজিরা কর্মরত মঞ্জুরুল ইসলাম। তিনি বলেন, ‘রসায়ন বিভাগে আমি একটা কাজে যাচ্ছিলাম। হঠাৎ দুজন বহিরাগত এসে আমাকে চড় থাপ্পড় মারতে থাকে। এসময় তারা চাকু দিয়ে আঘাত করার চেষ্টা করে। আর আমাকে ক্যাম্পাসে আসতে নিষেধ করে।’

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী দুইজন নিরাপত্তা চেয়ে রেজিস্ট্রার ও প্রক্টর বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। এদিকে বেলা দুইটার দিকে অবসরপ্রাপ্ত ডেপুটি রেজিস্ট্রার রাশিদুজ্জামানকে শাখা কর্মকর্তা উকিল উদ্দিন গালিগালাজ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনিও প্রক্টরের নিকট মৌখিক অভিযোগ করেছেন।

এ বিষয়ে প্রক্টর অধ্যাপক পরেশ চন্দ্র বর্ম্মণ বলেন, ‘আমাকে দুইজন লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। আর রাশিদুজ্জামান মৌখিক ভাবে অভিযোগ করেছেন। হঠাৎ ক্যাম্পাস অস্থিতিশীল হয়ে যাচ্ছে। বিষয় গুলো খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

খুলনা গেজেট/এনএম




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692