খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৯ জুন, ২০২৪

Breaking News

  কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধসে ৯ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৩

ফোনের ব্যাটারি দ্রুত শেষ করছে যে ১০ অ্যাপ

গেজেট ডেস্ক

গুগল প্লে স্টোরে এমন অনেক অ্যাপ রয়েছে যেগুলো স্মার্টফোনের ব্যাটারি খুব দ্রুত শেষ করে ফেলে। এর মধ্যে অনেক অ্যাপ রয়েছে যেগুলো অত্যন্ত জরুরি। কিন্তু তার পরও সেগুলো সম্পর্কে জেনে রাখা প্রয়োজন যেন জরুরি সময়ে ফোনের ব্যাকআপ বাড়াতে পারেন সহজেই। চলুন জেনে নিই যে অ্যাপগুলো স্মার্টফোনের ব্যাটারি দ্রুত শেষ করে ফেলে।

ফিটবিট : এটি ফিটনেস ও স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি অ্যাপ। স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন পর্যবেক্ষণ যেমন-হৃদস্পন্দন, হাঁটাহাঁটি, ঘুমের সময় ইত্যাদি রেকর্ড করার মাধ্যমে শরীরের অবস্থা বুঝা যায়।

উবার : এটি একটি রাইড শেয়ারিং অ্যাপ। এর মাধ্যমে গাড়ি বা বাইক ভাড়া করে দ্রুত গন্তব্যস্থলে যাওয়া যায়।

স্কাইপ : ভিডিও কনফারেন্সিং এ অ্যাপের মাধ্যমে কথা বলা যায় এবং বার্তা আদান-প্রদান করা যায়।

ফেসবুক : জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকের ওয়েবসাইটের চেয়ে অ্যাপের মাধ্যমে কাজ করা সহজ। তাই এ অ্যাপটি প্রায় সবার মোবাইলেই থাকে।

এয়ারবিএনবি : রুম-ফ্ল্যাট শেয়ারিংয়ের জনপ্রিয় অ্যাপ এয়ারবিএনবি। যে কেউ চাইলে হোটেলে না থেকে ফ্ল্যাট-বাসায় থাকতে পারেন এ অ্যাপ ব্যবহার করে।

ইন্সটাগ্রাম : মেটার মালিকানাধীন ছবি শেয়ারিংয়ের জন্য জন্যপ্রিয় অ্যাপ ইন্সটাগ্রাম। এটিও স্মার্টফোনের দ্রুত ব্যাটারি ড্রেইন করে।

টিন্ডার : এটি মূলত একটি ডেটিং অ্যাপ। এর মাধ্যমে জীবনসঙ্গী খুঁজে থাকেন অনেকেই।

বাম্বল : টিন্ডারের মতো এটিও একটি ডেটিং অ্যাপ। অনেকে জীবনসঙ্গী খুঁজতে এ অ্যাপটি ব্যবহার করে থাকেন।

স্ন্যাপচ্যাট : স্ন্যাপচ্যাট একটি আমেরিকান মাল্টিমিডিয়া ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ এবং পরিষেবা।

হোয়াটসঅ্যাপ : এটিও একটি ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং অ্যাপ। ফেসবুকের প্রধান প্রতিষ্ঠান মেটার অধীনে রয়েছে এটি।

রিসার্চ ফার্ম পিক্লাউড সম্প্রতি এ অ্যাপগুলো সম্পর্কে তথ্য প্রকাশ করেছে। এগুলোর প্রতিটিই অত্যন্ত জনপ্রিয় এবং বেশির ভাগ অ্যাপই ফোনে রয়েছে। হোয়াটসঅ্যাপ থেকে শুরু করে ফেসবুক পর্যন্ত এ অ্যাপগুলোর সব থেকে বড় সমস্যা হলো ক্লোজ করার পরেও ব্যাকগ্রাউন্ডে অ্যাপগুলো চলতে থাকে। তাই সচরাচর ব্যবহার করেন না বা প্রয়োজন হয় না এমন অ্যাপগুলো ফোন থেকে ডিলিট করে দিলে ব্যাটারির ব্যাকআপ আগের থেকে বাড়বে।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!