খুলনা, বাংলাদেশ | ৩১ শ্রাবণ, ১৪২৯ | ১৫ আগস্ট, ২০২২

Breaking News

  দেশে ডলারের বাজার স্থিতিশীল করতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে আন্তঃব্যাংক ডলার বেচাকেনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক
  গুম বলে আমাদের দেশে কোনো শব্দ নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ফের উদ্বেগ ছড়াচ্ছে করোনা : বাংলাদেশ ও ভারতে বাড়ছে রোগি

গেজেট ডেস্ক

২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ১০৯ জনের শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৯ লাখ ৫৪ হাজার ১১৫ জনে। শনাক্তের হার ২ দশমিক ০৬ শতাংশ। শনাক্তের সংখ্যা ও হার দুটোই বেশ কিছুদিন ধরে বাড়ছে।

২৪ ঘণ্টায় অবশ্য করোনায় কারো মৃত্যু হয়নি। ফলে মোট মারা যাওয়ার সংখ্যা ২৯ হাজার ১৩১ জন অপরিবর্তিত আছে।

রোববার (১২ জুন) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার জানানো হয়েছিল তার আগের ২৪ ঘণ্টায় ৫৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়।

আজকের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৯১ জন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৯ লাখ ৫ হাজার ২৬৬ জন।

২৪ ঘণ্টায় ৫ হাজার ৩৩০টি নমুনা সংগ্রহ করা হয়। পরীক্ষা করা হয় ৫ হাজার ২৮০টি নমুনা। পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার ২ দশমিক ০৬ শতাংশ। মহামারির শুরু থেকে এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৮ শতাংশ।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম ৩ জনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ওই বছরের ১৮ মার্চ দেশে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে প্রথম একজনের মৃত্যু হয়। ২০২১ সালের ৫ ও ১০ আগস্ট দুদিন সর্বাধিক ২৬৪ জন করে মারা যান।

এদিকে পাশের দেশ ভারতেও উদ্বেক বাড়াচ্ছে করোনা। গত ২৪ ঘন্টায় দেশটিতে শনাক্ত হয়েছে ৮ হাজার ৫৮২ করোনা রোগী, যা আগের চেয়ে ২০৩ শতাংশ বেশি। একইভাবে পশ্চিমবাংলায় শনাক্ত হয়েছে ১২৩ জন, যা আগের তুলনায় ২২৪ শতাংশ বেশি।

মুম্বইয়ে করোনা সংক্রমণ ক্রমশ বাড়ছে। বিশেষজ্ঞদের হিসাব শুনে চোখ কপালে ওঠার জোগাড়। গত ১৭ মে থেকে দেশের বাণিজ্যনগরীতে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পেয়েছে প্রায় এক হাজার শতাংশ।

গত ১৭ মে মুম্বইয়ে দৈনিক সংক্রমণ ছিল ১৫৮টি। সে দিন করোনা সংক্রমিতের মোট সংখ্যা ছিল ৯৩২। তার পর থেকেই লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে আক্রান্তের সংখ্যা। ১১ জুন, শনিবার মুম্বইয়ে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১০ হাজার ৪৭ জন। পাটিগণিতের হিসেবে যা ৯৭৮ শতাংশ বৃদ্ধি! যা গত পাঁচ মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ।

১৭ মে-র পর থেকে মুম্বইয়ে ১৭ হাজার মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার শহরে করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার সম্ভাবনা এসে দাঁড়িয়েছে ৫৬১ দিনে। যা এত দিন ছিল ৫৪৪৯ দিন। অর্থাৎ, এখন মুম্বইয়ে যা করোনা আক্রান্ত রয়েছেন, সংক্রমণের হার না কমলে ৫৬১ দিনের মধ্যে তা দ্বিগুণ হবে। শনিবার মুম্বইয়ে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১,৭৪৫। যা গোটা মহারাষ্ট্র্রের মোট দৈনিক করোনা আক্রান্তের প্রায় ৬০ শতাংশ।

নতুন করে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার ইঙ্গিত পাওয়ার পরই তৎপর হয়েছে সরকার ও বৃহন্মুম্বই পুরসভা। শহরের সমস্ত হাসপাতাল ও ল্যাবরেটরিকে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় পরিকাঠামো মজবুত করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। টিকাকরণের গতি বৃদ্ধি করা হয়েছে। মুম্বইয়ে নিম্ন আয় সম্পন্ন ব্যক্তিরা থাকেন, এমন জায়গায় ঘন ঘন স্যানিটাইজেশনের কাজ চলছে দিনভর। মাস্ক পরা এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারেও জনগণকে অবহিত করা হচ্ছে।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692