খুলনা, বাংলাদেশ | ১০ আষাঢ়, ১৪৩১ | ২৪ জুন, ২০২৪

Breaking News

  পাবনা সদর উপজেলার নতুন গোয়াইলবাড়ি এলাকায় পদ্মা নদীতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু
  ব্লগার নাজিমুদ্দিন হত্যা : মেজর জিয়াসহ ৪ আসামির বিচার শুরু, ৫ জনকে অব্যাহতি

নীল ঢেউ থামিয়ে আহমেদাবাদে অজি উৎসব

ক্রীড়া প্রতিবেদক

টুর্নামেন্ট জুড়ে ভারতের যে ব্যাটিং দেখা গেছে, ফাইনালে সেটা খুঁজে পাওয়া গেল খুব কমই। আসলে খুঁজে পেতে দেয়নি অস্ট্রেলিয়া। কী বোলিং, কী ফিল্ডিং। ভারতকে মাথা তোলার খুব একটা সুযোগই দেয়নি অজিরা। শুধু বোলিং-ফিল্ডিং! যে পিচে দাঁড়াতে পারেনি স্বাগতিকরা, সেখানে দাঁড়িয়ে সহজেই নিজেদের বিশ্ব শ্রেষ্ঠত্বের চেহারা দেখালো অস্টেলিয়া। শুধু মাঠেরে এক লাখ ৩২ হাজার দর্শকেই নয়, কোটি কোটি ভারত সমর্থকদের কাঁদিয়ে ট্রাভেল হেডের অনবদ্য সেঞ্চুরীতে ৭ ওভার বাকী রেখেই  ৬ উইকেটের সহজ পেল অস্টেলিয়া। অনেক কাঙিক্ষত   ক্রিকেট ফাইনালটি রূপ নিলো সাদামাটা ম্যাচে। এ নিয়ে ছয় বার বিশ্ব ক্রিকেটের শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করলো অজিরা।

এর আগে টস হেরে আগে ব্যাটিং করা ভারতের ইনিংস থেমেছে ২৪০ রানে। চতুর্থ উইকেটে বিরাট কোহলি আর লোকেশ রাহুলের জুটি পর্যন্ত মনে হয়েছিল, স্কোরটা ২৮০ রানের আশপাশে থামবে। কিন্তু দুজনের ৬৭ রানের জুটি ভাঙার পর ভারতের ইনিংস আর গতি পায়নি। অথচ স্বাগতিকদের ইনিংস শুরুর গল্পটা কিন্তু এমন ছিল না।

ওপেনিংয়ে রোহিত শর্মার সঙ্গে শুবমান গিলের জুটি ৩০ রানে শেষ হয়ে গিয়েছিল বটে। কিন্তু দ্বিতীয় উইকেটে কোহলিকে নিয়ে ইনিংসের গতি হারাতে দেননি রোহিত। আরেকটি ঝোড়ো ইনিংসে অজি বোলারদের দিশাহারাই করছিলেন। কিন্তু আরেকবার তাঁর ইনিংস পূর্ণতা পাওয়ার আগে থেমেছে।

ট্রাভিস হেডের দুর্দান্ত এক ক্যাচের শিকার হয়ে রোহিত ফেরেন ৪৭ রানে। আগের দুই বলে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে ছক্কা আর চার মেরেছিলেন। আউট হওয়া বলেও উড়িয়ে মারতে গিয়েছিলেন। কিন্তু টাইমিংটা পাননি। তিন বল পরই অধিনায়কের পথ অনুসরণ করেছেন শ্রেয়াস আইয়ার।

এরপর কোহলি-রাহুলের জুটি। কোহলির ফিফটির পর এ জুটি ভাঙে। ৬৩ বলে ৫৪ রান করে প্যাট কামিন্সের বলে আউট হয়েছেন কোহলি। কোহলির ৬৩ বলের ইনিংসটি সাজানো চারটি চারে। রাহুলের সঙ্গে এরপর জুটি বাঁধেন রবীন্দ্র জাদেজা। তবে ২২ বল স্থায়ী ইনিংসে অস্ট্রেলিয়ান বোলারদের সামনে রীতিমতো সংগ্রাম করেছেন জাদেজা। শেষ পর্যন্ত আউট হয়েছেন জশ হ্যাজেলউডের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে।

তার পর‍ও রাহুল শেষ পর্যন্ত থাকতে পারলে ভারতের ইনিংস শেষের গল্পটা একটু ভিন্ন হলেও হতে পারত। সূর্যকুমার যাদবের সঙ্গে ২৫ রানের জুটিতে সে স্বপ্নটাই দেখাচ্ছিলেন রাহুল। কিন্তু তিনিও আউট হয়েছেন ৬৬ রানে। তাঁর ১০৭ বলের ইনিংসে মাত্র একটি চার। এরপর লেজের ব্যাটারদের আসা-যাওয়ার মিছিল চলেছে। ৫০তম ওভারের শেষ বলে কুলদীপ যাদব আউট হলে ভারতের ইনিংস শেষ হয়।

তবে ভারতের দুর্দান্ত বোলিং লাইনআপের সামনে রান তাড়া সহজ হওয়ার কথা নয়। দেখা যাক, ট্রফিটা ঘরে রাখার মতো দারুণ কিছু ভারতীয় বোলাররা করতে পারেন কি না।

খুলনা গেজেট/কেডি




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!