খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৯ জুন, ২০২৪

Breaking News

  কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে পাহাড়ধসে ৯ জনের মৃত্যু, নিখোঁজ ৩

নিজের ক্যারিয়ার নিয়ে যে সিদ্ধান্ত জানালেন ধোনি

ক্রীড়া প্রতিবেদক

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) এবার আসরের চ্যাম্পিয়ান হয়েছে চেন্নাই সুপার কিং। পুরস্কার হাতে তুলে নেন দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। এরপর কথা বলে দর্শকদের উদ্দেশ্য।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৩টায় আইপিএল ট্রফি হাতে তুলে নেওয়ার ঠিক আগের মুহূর্তে অবধারিতভাবে ধোনির দিকে সেই অমোঘ প্রশ্নটা ছুটে আসে। এবার প্রশ্নের ধরনটা কিছুটা আলাদা ছিল। কিন্তু আবেগটা সেই একইরকম ছিল। আর যে ধোনি নিজের ক্রিকেট ক্যারিয়ারের সেরা সময়ও নিজেকে অনুভূতি, আবেগ থেকে দূরে রেখেছিলেন, সেই ধোনি যেন নিজের পেশাদারি কেরিয়ারের শেষলগ্নে আবেগে সিক্ত হয়ে গেলেন। বুঝিয়ে দিলেন, এবারই আইপিএল কেরিয়ারে ইতি টানবেন ভেবেছিলেন। কিন্তু চেন্নাই সুপার কিংস (সিএসকে) ভক্তদের ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়ে গিয়েছেন। তাই আরও একটি মৌসুম খেলতে চান তিনি।

পঞ্চমবার আইপিএল ট্রফি জয়ের সঞ্চালক হর্ষ ভোগলের প্রশ্নের জবাবে ধোনি বলেন, ‘যদি সবকিছু বিবেচনা করে দেখেন, তাহলে এটাই অবসর ঘোষণার সেরা সময়। এই মুহূর্তে দাঁড়িয়ে অবসর নেওয়ার কাজটা সোজা। কিন্তু কঠিন কাজটা হলো, আরও ৯ মাস কঠোর পরিশ্রম করা এবং আরও একটি আইপিএলে খেলার চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া। শরীরকে সেই চাপ সইতে হবে। কিন্তু সিএসকে ভক্তদের থেকে যে ভালোবাসা পেয়েছি, তাতে আরো একটি আইপিএল খেলে তাদের একটি উপহার দিতে চাই। তারা যেভাবে নিজের ভালোবাসা, আবেগ প্রকাশ করেছেন, সেটা বিবেচনা করে এই কাজটা আমার করা উচিত। এটা আমার কেরিয়ারের শেষ ভাগ।’

মুখে শুধু সিএসকে ভক্তদের কথা বললেও আদতে গোটা বিশ্বের কোটি-কোটি ধোনি ভক্তের সেই ‘রিটার্ন গিফট’ দিলেন মাহি। যারা এবার নিজেদের দলকে ছেড়ে ধোনিকে সমর্থন করেছেন। হলুদ জার্সি পরে মাঠে গিয়েছেন। সেটা কলকাতা নাইট রাইডার্সের (কেকেআর) সমর্থক হোক বা মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের সমর্থক হোক- ধোনির প্রতি যে ভালোবাসা, সেটার সামনে ফ্র্যাঞ্চাইজি-ফ্র্যাঞ্চাইজি লড়াই গৌণ হয়ে গিয়েছে। মাঠে দুটি দল, ২২ জন খেলোয়াড় থাকলেও চরিত্র একজনই থেকেছেন, তিনি হলেন ধোনি।

আর ২০২৩ সালের আইপিএলের একেবারে শেষলগ্নে এসে ধোনি সেই ফ্যানদেরও যেন জিতিয়ে দিলেন। আইপিএল ট্রফিটা চেন্নাইয়ে গেলেও জিতে গেলেন বিশ্বের কোটি-কোটি ধোনি ফ্যান। কারণ তারা তো ধোনিকে আবারো মাঠে দেখতে পাবেন। যার ক্রিকেটীয় ম্যাজিকে মুগ্ধ হবেন, যার ডিসিশন রিভিউ সিস্টেমের (ডিআরএস) সামনে আম্পায়াররাও নতজানু হবেন, যে মানুষটার জন্য ইডেন গার্ডেন্স হোক বা ওয়াংখেড়ে হোক বা একানা স্টেডিয়াম হোক বা চিন্নস্বামী স্টেডিয়াম হোক বা নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম হোক- সবাই বলে উঠবে ‘ধোনি, ধোনি….ধোনি, ধোনি।’ সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!