খুলনা, বাংলাদেশ | ৪ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ | ১৮ মে, ২০২৪

Breaking News

  চট্টগ্রামে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লরি পুকুরে, নিখোঁজ শিশু
  আবারও ৪৮ ঘণ্টার তাপপ্রবাহের সতর্কবার্তা জারি
  রাজধানীর বাসাবোতে ১১ তলা থেকে পড়ে তিন শ্রমিকের মৃত্যু
  কক্সবাজার সদর উপজেলায় খাল থেকে দুই জেলের মরদেহ উদ্ধার
  কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে নিহত ৫, আহত ১৫

চোর সন্দেহে দুই নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যা

গেজেট ডেস্ক

রাজশাহীতে চোর সন্দেহে দুই নির্মাণ শ্রমিককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। মহানগরীর সপুরার বিসিক শিল্প এলাকার মডার্ণ ফুড নামের কোম্পানির মালিকের বাসায় বৃহস্পতিবার এ ঘটনা ঘটে।

বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ নির্যাতনে গুরুতর আহত দুই শ্রমিককে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নিয়ে যায়। এ সময় জরুরি বিভাগেই একজনকে মৃত ঘোষণা করা হয়। অন্যজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিহত দুজন হলেন-চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতান্নপুর গ্রামের গোলাম মোস্তফার ছেলে রাকিবুল ইসলাম (৩৫) ও নওগাঁর মান্দা উপজেলার সগুনা গ্রামের আবদুস সামাদের ছেলে রেজাউল করিম (৪০)। রেজাউল নগরীর তেরোখাদিয়া ডাবতলা মহল্লায় বসবাস করতেন।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাজহারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, ঘটনার সঙ্গে জড়িত কারখানা মালিকসহ ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, নগরীর সপুরার মডার্ণ ফুডের মালিক আব্দুল মালেক হাজীর ছেলে মোহাম্মদ আব্দুল্লাহর কারখানা সংলগ্ন বাসায় রাজমিস্ত্রির কাজ করছিলেন দুই শ্রমিক। বৃহস্পতিবার দুপুরে ১০ লাখ টাকা চুরির অভিযোগে দুই শ্রমিককে খুঁটিতে বেঁধে লোহার রড ও লাঠি দিয়ে বেদম মারধর করা হয় শরীরে। চুরির স্বীকারোক্তি আদায়ে রাত সোয়া ৯টা পর্যন্ত দুই শ্রমিকের ওপর নৃসংশ নির্যাতন চলে। নির্যাতনের সময় মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করা হয়। এই ধরনের দুটি ভিডিও পুলিশ উদ্ধার করেছে।

এদিকে গোপন মাধ্যমে খবর পেয়ে বোয়ালিয়া থানার ওসি মাজহারুল ইসলাম রাত সাড়ে ৯টার দিকে কারখানার সংলগ্ন মালিকের বাসায় অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় দুই শ্রমিককে মুমূর্ষু অবস্থায় দেখতে পেয়ে পুলিশ পিকআপে তুলে তাদেরকে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক রেজাউলকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত অপর শ্রমিককে ৮ নম্বর ওয়ার্ডে পাঠানো হয়। ভর্তির কয়েক মিনিট পর তারও মৃত্যু হয়।

দুই শ্রমিককে উদ্ধারের সময় কারখানা মালিকের ছেলে আব্দুল্লাহ, আব্দুল্লাহর শশুর মাসুম রেজা, চাচাতো শ্যালক মহিউদ্দিন রিয়াল ও কর্মচারী ইমরান হোসেনকে আটক করেছে পুলিশ । তাদেরকে বোয়ালিয়া থানায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

এদিকে নিহত শ্রমিকদের পরিবারকে রাতেই খবর দেওয়া হয়েছে। ওসি জানান, শুক্রবার সকালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ফরেনসিক বিভাগে ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এজাহার পাওয়া সাপেক্ষে হত্যা মামলা করা হবে।

খুলনা গেজেট/ বি এম এস




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!