খুলনা, বাংলাদেশ | ২৯ আষাঢ়, ১৪৩১ | ১৩ জুলাই, ২০২৪

Breaking News

  কুষ্টিয়ায় সেপটিক ট্যাংকে নেমে প্রাণ গেল ২ রাজমিস্ত্রির
  পঞ্চম বর্ষে পা রাখলো ‘খুলনা গেজেট ‘। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে সকল পাঠক, বিজ্ঞাপনদাতা ও শুভানুধ্যায়ীদের শুভেচ্ছা।

চুয়াডাঙ্গায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে টিকটক, কিশোর আটক

গেজেট ডেস্ক

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে টিকটক করার অভিযোগে এক কিশোরকে (১৭) আটক করেছে পুলিশ। রোববার (১৫ অক্টোবর) রাত ১০টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার গোবিন্দহুদা গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়।

দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) আলমগীর কবির গনমাধ্যমে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মতিয়ার রহমান বলেন, ইসলামী বক্তা ড. মিজানুর রহমান আজহারীর ছবির সঙ্গে পূজার নাচের একটি ভিডিও টিকটকে আপলোড করে গ্রামের এক কিশোর। বিষয়টি রোববার সকালে জানাজানি হলে গ্রামে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

সন্ধ্যার পর গ্রামের লোকজন একত্র হতে থাকেন। খবর পেয়ে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রোকসানা মিতা, জেলা পুলিশের সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা সার্কেল) জাকিয়া সুলতানা, দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আলমগীর কবির, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হযরত আলী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। এসময় গ্রামবাসী অভিযুক্তকে বিচারের দাবি জানালে প্রশাসনের আশ্বাসে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়।

দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হযরত আলী বলেন, একপাশে মিজানুর রহমান আজহারির ছবি ও আরেকপাশে পূজার নাচের দৃশ্য দিয়ে নিজের টিকটক আইডিতে একটি ভিডিও আপলোড দেয় গ্রামের এক কিশোর। এতে এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে গ্রামবাসী একত্র হতে শুরু করেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হতে পারে ভেবে রাতেই ইউএনও, সহকারী পুলিশ সুপার, ওসিসহ আমরা ঘটনাস্থলে যায়।

পরে অভিযুক্তকে আইনের আওতায় এনে বিচারের আশ্বাস দিলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। রাতেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে আটক করেছে।

দামুড়হুদা মডেল থানা পুলিশের পরিদর্শক (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, একটি টিকটক ভিডিও কেন্দ্র করে গ্রামে উত্তেজনার সৃষ্টি হয়। এরপর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে পৌঁছে অভিযুক্ত কিশোরকে আটক করে হেফাজতে নেয়।

খুলনা গেজেট/ টিএ




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!