খুলনা, বাংলাদেশ | ৩১ আশ্বিন, ১৪২৮ | ১৬ অক্টোবর, ২০২১

Breaking News

  কুমিল্লায় ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ, শিশুসহ তিন যাত্রী আহত
  রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থেকে ৫ কেজি আইস, অস্ত্র ও গুলিসহ টেকনাফ মাদক সিন্ডিকেটের সদস্য খোকনসহ গ্রেপ্তার ২

খুলনায় ইজিবাইক গ্যারেজ ম্যানেজারের লাশ উদ্ধার

নিজস্ব প্রতিবেদক

খুলনা মহানগরীর লবনচরা থানাধীন মোহাম্মাদ নগর বাবলু সড়কে ইজিবাইকের গ্যারেজ থেকে ম্যানেজার মোঃ শামীম মোড়ল (২০) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ছয় টার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ ওই গ্যারেজের মালিকসহ ১২ জন ড্রাইভারকে আটক করেছে। নিহত শামীম নগরীর শান্তিনগর দারোগার ভিটার মোঃ মুজিবর মোড়লের ছোট ছেলে। এ হত্যাকান্ড নিয়ে ওই এলাকায় রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, শামীম গ্যারেজ মালিক সোহেলের অধীনে গত দু’বছর যাবত চাকরি করেন। নতুন গ্যারেজের বয়স দু’মাস। গত দু’মাস ধরে বাবলু সড়কের এ ইজিবাইক চার্জিং পয়েন্ট ও মেসার্স আর আর এন্টারপ্রাইজের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করে আসছিল শামীম। কী কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে তা কেউ বলতে পারেনি। তবে গত রাতে তার নিকট নগদ ২৩ হাজার টাকাও ছিল বলে এলাকাবাসি জানান।

ভোর সাড়ে পাঁচ টার দিকে একজন ইজিবাইক চালক তার বাইকটি নিতে চার্জিং পয়েন্টে আসে। শামীমকে গলায় গামছা পেচানো অবস্থায় ফ্লোরে পড়ে থাকতে দেখে সন্দেহ হয় তার। শামীমের সাড়া শব্দ না পেয়ে প্রতিবেশীদের ডাকেন তিনি। এরপর গ্যারেজ মালিক ও নিহতের পিতাকে খবর দেওয়া হয়। গ্যারেজ মালিক পুলিশকে ঘটনাস্থলে আসার জন্য খবর দেয়। পুলিশ তার সুরতহাল রির্পোট তৈরি করে থানায় প্রেরণ করে। নিহতের পিতা সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে লবনচরা থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রহিম জানান, সকাল ছয় টার দিকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসেন। তাকে গামছা দিয়ে শ্বাস রোধ করে হত্যা করা হয়েছে। এ সময়ে তার গলার হাড়টি ভেঙ্গে যায়। মামলাটি তদন্ত করা হচ্ছে। ঘাতকরা নিহতের খুব কাছের। হত্যাকান্ডটি ঘটানোর আগে ইজিবাইক গ্যারেজের সকল সিসি ক্যামেরা ও মনিটর ভেঙ্গে ফেলা হয়। হত্যাকান্ডের ব্যাপারে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গ্যারেজ মালিক মোঃ সোহেলসহ ১২ জন ড্রাইভারকে থানায় আনা হয়েছে।

নিহত শামীমের বাবা জানান, বুধবার সন্ধ্যায় কথা হয় ছেলের সাথে। ছেলে যে এভাবে খুন হবে তা তিনি কল্পনা করতে পারেনি। কারোর সাথে তার ছেলের কোন দ্বন্ধ ছিল না। সহজ সরলভাবে জীবনযাপন করত সে। তবে খুনী যে হোক তার বিচার দাবি করেন তিনি।

 

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692