খুলনা, বাংলাদেশ | ২০ ফাল্গুন, ১৪৩০ | ৪ মার্চ, ২০২৪

Breaking News

  ঢাকায় অর্ধশত রেস্তোরাঁয় পুলিশের অভিযান, আটক ৪০

খুবির বাস ভাঙচুরে বিএনপির ৫০ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা, গ্রেপ্তার ৩

নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির ডাকা অবরোধে বুধবার খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) বাস ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপির ৫০ নেতার বিরুদ্ধে মামলা করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার এস আই আশিক রেজা বাদি হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর)  সন্ধ্যার পর মামলার বিষয়টি প্রকাশ পায়।

খুলনা মহানগর বিএনপির সদস্য সচিব শফিকুল আলম তুহিন, যুগ্ম আহবায়ক শের আলম সান্টু, মাহাবুব হাসান পিয়ারু, চৌধুরী শফিকুল ইসলাম হোসেন, একরামুল হক হেলাল, তৈয়েবুর রহমান, হাসানুর রশিদ চৌধুরী মিরাজ, মেখ সাদী, সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপির আহবায়ক হাফিজুর রহমান মনি, সদর থানা বিএনপির সদস্য সচিব মোল্লা ফরিদ আহমেদ, সোনাডাঙ্গা থানা বিএনপির সদস্য সচিব সাজ্জাদ আহসান পরাগ, বিএনপি নেতা একরামুল কবির মিল্টন, তারিকুল ইসলাম তারেক, কেন্দ্রীয় যুবদলের সহ সভাপতি নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর, মহানগর ছাত্রদলের আহবায়ক ইশতিয়াক আহমেদ ইসতি, সদস্য সচিব তাজিম বিশ্বাস, ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি শরিফুল ইসলাম বাবু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি একরামুল হক হেলালমহ ৫০ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। এছাড়া অজ্ঞাত পরিচয় আরও ৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এদিকে বাস ভাংচুরের ঘটনায় ১৯নং ওয়ার্ড যুবদলের যুগ্ম সম্পাদক ইলিয়াস হাওলাদার, বিএনপি কর্মী নাসির আহমেদ ও মো. দুলালকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

নগরীর সোনাডাঙ্গা থানার ওসি মমতাজুল হক জানান, খুবির বাস ভাংচুরের মামলায় বৃহস্পতিবার বিএনপির ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। আদালতের মাধ্যমে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার দুপুরে নগরীর শেরে বাংলা সড়কে খুবির শিক্ষক বাসে ভাংচুর চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে চালকের সহকারী জুয়েলসহ দুই জন আহত হয়। বাস ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপি ও যুবলীগ পরষ্পরকে দায়ী করেছে।

অপরদিকে এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ ও নিন্দা জানিয়েছেন খুলনা বিএনপি নেতৃবৃন্দ। বৃহস্পতিবার (০৭ ডিসেম্বর) বিএনপি মিডিয়া সেল প্রদত্ত বিবৃতিতে নেতারা বলেন, গত ৬ ডিসেম্বর নগরীর শেরে বাংলা রোডে অবরোধের সমর্থনে বিএনপি মিছিল শুরু করলে মিছিলের পিছন থেকে দুর্বৃত্তরা হামলা করে। এ সময় দুর্বৃত্তরা বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে বিএনপির মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। দৃর্বৃত্তদের হামলায় বিএনপির পাঁচজন নেতা-কর্মী আহত হওয়া সত্ত্বেও দুর্বৃত্তদের নিরাপদে রেখে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে পুলিশ প্রমান করেছে তারা শাসকদলের আজ্ঞাবহ। মামলা-হামলা করে বিএনপির চলমান গণতান্ত্রিক আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না।

নেতারা আরো বলেন, চলমান আন্দোলন শুধু বিএনপির না। সাধারণ মানুষও এই আন্দোলনে সম্পৃক্ত। গণতন্ত্রের জন্য সাধারণ মানুষ বিএনপির আন্দোলনে সমর্থন দিয়েছে। নির্দলীয় সরকার ছাড়া দেশে কোনো নির্বাচন হবে না। অবিলম্বে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিদাতারা হলেন, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক রকিবুল ইসলাম বকুল, তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আজিজুল বারী হেলাল, মহানগর বিএনপির আহবায়ক এড. শফিকুল আলম মনা, জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আবু হোসেন বাবু, জেলা বিএনপির সদস্য সচিব মনিরুল হাসান বাপ্পী প্রমুখ।

খুলনা গেজেট/এইচ এইচ/কেডি




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!