খুলনা, বাংলাদেশ | ২৬ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩০ | ৯ জুন, ২০২৩

Breaking News

  চট্টগ্রামে ওয়াগন-লরি সংঘর্ষে মোটরসাইকেল চালক নিহত
  আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলের একটি মসজিদে বিস্ফোরণে নিহত ১৫, আহত ৫০ জনেরও বেশি

আলমডাঙ্গায় স্কুলের বিদায় অনুষ্ঠানে সংঘর্ষ, ৮ শিক্ষার্থী আহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, চুয়াডাঙ্গা

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় একটি বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান চলাকালীন দশম শ্রেণি এবং এসএসসি পরীক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় উভয় পক্ষের ৮ শিক্ষার্থী আহত হয়েছে।

বুধবার (১০ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার নাগদহ ইউনিয়নের নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়।

এর আগে রোববার (৭ নভেম্বর) দুপুর ১২টার দিকে চুয়াডাঙ্গা পৌর এলাকার গুলশানপাড়ায় আল হেলাল মাধ্যমিক ইসলামি একাডেমি বিদ্যালয়ে বিদায় অনুষ্ঠান চলাকালে প্রকাশ্যে এসএসসি পরীক্ষার্থী তন্ময় হাসান তপুকে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। এ নিয়ে জেলাজুড়ে চরম আতঙ্ক বিরাজ করছে।

আহতরা হলো নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থী আসিফ, আলমগীর, হৃদয়, শাকিল, আকাশ, আলো এবং দশম শ্রেণির ছাব্বির ও রিয়াদ। আহতরা নাগদহ গ্রামের গোলামবানু প্রাইভেট হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বুধবার সকালে নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীরা বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে বিদায় অনুষ্ঠান আয়োজন করে। এ সময় তারা উচ্চ স্বরে সাউন্ড সিস্টেমের মাধ্যমে গান বাজাচ্ছিল। এ সময় দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা ক্লাস করছিল। ক্লাসের ব্যাঘাত ঘটায় এসএসসি পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে উভয়পক্ষ লাঠিসোটা ও বাঁশ নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে উভয় পক্ষের ৮ জন শিক্ষার্থী আহতের ঘটনা ঘটে।

বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক আক্তার হোসেন বলেন, বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কোনো বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেনি। এসএসসি পরীক্ষার্থীরা তাদের প্রবেশপত্র নিতে এসেছিল। এ সময় কোনো কারণে দশম শ্রেণির ছাত্রদের সঙ্গে কথা-কাটাকাটি হলে সামান্য হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে স্কুল কর্তৃপক্ষ বিষয়টি মীমাংসা করেছে।

ঘোলদাড়ি পুলিশ ক্যাম্পের উপপরিদর্শক (এসআই) কার্তিক বলেন, নাগদহ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় সংবর্ধনার সময় দশম শ্রেণির ছাত্রদের সঙ্গে তর্কাতর্কি ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নিই। পরে বিষয়টি মীমাংসা হয়েছে বলে জেনেছি।

 

খুলনা গেজেট/এএ




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!