খুলনা, বাংলাদেশ | ১০ বৈশাখ, ১৪৩১ | ২৩ এপ্রিল, ২০২৪

Breaking News

আবারও গুড়ি গুড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস, কমবে রাতের তাপমাত্রা

গেজেট ডেস্ক

আবহাওয়া অধিদপ্তর শনিবার (১৪ জানুয়ারি) দেশের বিভিন্ন স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিলেও কোথাও তেমন বৃষ্টি হয়নি। তবে রাজধানীসহ দেশের অনেক স্থানে  দিনের একটা বড় সময়ে কুয়াশা ছিল। কোনো কোনো এলাকায় আকাশ ছিল মেঘলা। এমন মেঘলা আর কুয়াশাঢাকা অবস্থার মধ্যে অবশ্য গড় তাপমাত্রা বেড়েছে। রবিবারও সেই বৃদ্ধি অব্যাহত থাকবে। তবে এদিন (১৫ জানুয়ারি) আট বিভাগের দু-একটি স্থানে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। অবশ্য এর পর থেকে রাতের তাপমাত্রা কমতে থাকবে।

শনিবার সন্ধ্যা ছয়টায় আবহাওয়া অধিদপ্তর আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলেছে, আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। তবে রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু-এক জায়গায় গুঁড়ি গুঁড়ি বা হালকা বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আজ মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত দেশের নদী অববাহিকা ও এর কাছাকাছি এলাকায় মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা এবং দেশের অন্যত্র হালকা থেকে মাঝারি ধরনের কুয়াশা পড়তে পারে। এমন কুয়াশা দুপুর পর্যন্ত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুক বলেন, ঢাকার পাশের টাঙ্গাইল ও ময়মনসিংহ অঞ্চলে এখন আকাশ মেঘলা আছে। সেই মেঘ যদি ঢাকার দিকে আসে তবে কাল এখানে তেমন কুয়াশা হবে না।

আবহাওয়া অধিদপ্তর বলছে, নওগাঁ ও মৌলভীবাজার জেলাসহ রংপুর বিভাগের ওপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। কিছু কিছু এলাকা থেকে এই শৈত্যপ্রবাহ কমে যেতে পারে। সারা দেশে রাতের তাপমাত্রা ১ থেকে ২ ডিগ্রি সেলসিয়াস বাড়তে পারে এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

শুক্র ও শনিবার টানা দুই দিন তাপমাত্রা একনাগাড়ে বেড়েছে। আবহাওয়ার স্টেশনগুলোর তথ্য বলছে, গড়ে ৩ থেকে ৪ ডিগ্রি তাপমাত্রা বেড়েছে দুই দিনে। গত ২৪ ঘণ্টায় যশোরে তাপমাত্রা বেড়েছে ৫ দশমিক ৪ ডিগ্রি, চুয়াডাঙ্গায় ৫ দশমিক ২ ডিগ্রি, নারায়ণগঞ্জে ৪ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা বেড়েছে। আর রাজধানীতে এক দিনে তাপমাত্রা বেড়েছে ২ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

খুলনা গেজেট/কেডি




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!