খুলনা, বাংলাদেশ | ১২ বৈশাখ, ১৪৩১ | ২৫ এপ্রিল, ২০২৪

Breaking News

  রাঙামাটির সাজেকে শ্রমিকবাহী মিনি ট্রাক পাহাড়ের খাদে পড়ে ৯ জন নিহত

অবসর নিচ্ছেন ‘টেনিস সুন্দরী’ সানিয়া মির্জা

ক্রীড়া ডেস্ক

অবশেষে টেনিস থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন ভারতীয় টেনিস সেনসেশন সানিয়া মির্জা। মহিলা টেনিস অ্যাসোসিয়েশনের সাক্ষাৎকারে সানিয়া জানালেন তাঁর অবসরের খবর। ফেব্রুয়ারি মাসে দুবাই ডব্লিউটিএ-১০০০ প্রতিযোগিতাই শেষ। দুবাই টেনিস প্রতিযোগিতার আগে অবশ্য অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে দেখা যাবে তাঁকে। কাজাখস্তানের অ্যানা দানিলিনার সঙ্গে জুটি বেঁধে নামবেন তিনি।

এর আগে, সানিয়া ২০২২ সালের শেষে ইউএস ওপেন খেলেই অবসর নেওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। কিন্তু কনুইয়ের চোটের কারণে তিনি ইউএস ওপেন খেলতে পারেননি। তাই দুবাই টেনিস প্রতিযোগিতাকেই নিজের সোনালী কেরিয়ারের ইতি টানার জন্য বেছে নিয়েছেন তিনি।

নতুন বছরের শুরুতেই ভারতীয় টেনিসের পোস্টার গার্ল জানিয়ে দিলেন, এবার পাকাপাকিভাবে র‍্যাকেট তুলে রাখছেন তিনি। ছয় বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী ভারতীয় টেনিস তারকা জানিয়েছেন, আগামী ফেব্রুয়ারিতে দুবাই টেনিস প্রতিযোগিতা খেলে টেনিসকে বিদায় জানাবেন।

সানিয়া জানান, ‘আমি ভেবেছিলাম ইউএস ওপেন খেলে অবসর নেব। কিন্তু প্রতিযোগিতার আগেই ডান হাতের কনুইয়ে চোট পেয়েছিলাম। আমি সব সময় নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী কাজ করি। চাইনি চোটের কারণে অবসর নিতে বাধ্য হই। ঠিক করেছিলাম, খেলেই অবসর নেব। তাই দুবাই টেনিস প্রতিযোগিতা খেলে র‍্যাকেট তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

অবসর প্রসঙ্গে নিজের স্বাস্থ্য সংক্রান্ত সমস্যার কথা উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেন, ‘৩৬ বছর বয়স হল। শরীর আর পারছে না। মানসিক ভাবে হয়তো এখনও চাঙ্গা আছি। কিন্তু মানসিক শক্তি দিয়ে কত দূর টানা যায়? ২০ বছর তো খেললাম। এখন জীবনে অনেক কিছু বদলেছে। প্রতি দিন আর অত ধকল নিতে পারছি না।’

সানিয়া মির্জাকে এখনও পর্যন্ত ভারতের সর্বশ্রেষ্ঠ টেনিস খেলোয়াড়ের মর্যাদা দেওয়া হয়। তার ঝুলিতে ছয়টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ডাবলস শিরোপা আছে। এ ছাড়া ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়া ওপেনে মহিলাদের ডাবলস শিরোপা জিতেন তিনি।

২০০৩ সালে পেশাদারী টেনিসে পা রাখার পর বিশ্বব্যাপী আলো ছড়িয়েছেন সানিয়া। তাঁর ঝুলিতে রয়েছে মহিলাদের ডবলসে তিনটি গ্র্যান্ডস্ল্যাম। এছাড়াও মিক্সড ডাবলসে রয়েছে তিনটি গ্র্যান্ডস্ল্যাম খেতাব। প্রথম ভারতীয় হিসেবে ডব্লিউটিএ শিরোপা জয়ের তকমাও রয়েছে তাঁর মুকুটে। দীর্ঘ ২০ বছর ধরে পেশাদারী টেনিসকে নিজের সর্বোচ্চটা উজাড় করে দেওয়ার পর অবশেষে র‍্যাকেট তুলে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেললেন দেশের ‘টেনিস সুন্দরী’।

খুলনা গেজেট/এমএম




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692

Don`t copy text!