খুলনা, বাংলাদেশ | ৬ কার্তিক, ১৪২৮ | ২২ অক্টোবর, ২০২১

Breaking News

  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ ও স্কটল্যান্ড
  ডেঙ্গুতে আরও ১৭০ জন হাসপাতালে ভর্তি, মৃত্যু ১
  অপপ্রচারের অভিযোগে বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক রুমা সরকার দুই দিনের রিমান্ডে
  ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

সিরিজ জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৯৪ রান

ক্রীড়া প্রতিবেদক

নাসুমের দারুণ শুরুর পর এবার মোস্তাফিজের কাটারে ধুঁকতে থাকে নিউজিল্যান্ড। নাসুম চারটি এবং চারটি উইকেট তুলে নেন মোস্তাফিজুর রহমান। অবশেষে ৯৩ রান সংগ্রহ করে নিউজিল্যান্ড। সিরিজ জিততে বাংলাদেশের প্রয়োজন ৯৪ রান। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে দারুণ জয় তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশ। তৃতীয় ম্যাচে জিতে সিরিজে ঘুরে দাঁড়িয়েছে নিউজিল্যান্ড। বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) চতুর্থ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশের সামনে সিরিজ জেতার হাতছানি, কিউইদের জন্য সিরিজ বাঁচানোর।

মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে এমন ম্যাচে টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমেছে নিউজিল্যান্ড। বোলিংয়ে ভালো শুরু করে বাংলাদেশ। শুরুতেই নাসুমের জোড়া আঘাত দূর্বল করে দেয় নিউজিল্যান্ডকে।

নিউজিল্যান্ডের ইনিংসে বোলিং শুরু করেন স্পিনার নাসুম আহমেদ। চতুর্থ বলেই রচিন রবীন্দ্রকে (৫ বলে ০) ক্যাচে পরিণত করেন তিনি। ক্যাচটি নেন সাইফউদ্দিন। নিউজিল্যান্ড রানের খাতা খোলার আগেই উইকেট হারাল। প্রথম ওভারে নিউজিল্যান্ড ১ উইকেট হারালেও কোনো রান তুলতে পারেনি।

দ্বিতীয় ওভার করতে বোলিংয়ে আসেন সাকিব আল হাসান। সাকিবের করা দ্বিতীয় ওভারের পঞ্চম বলে রিভার্স সুইপে ছক্কা মারেন ওপেনার ফিন অ্যালেন। ২ ওভার শেষে ১ উইকেটে ১০ রান তোলে নিউজিল্যান্ড। এরপর আবারও বল করতে আসেন নাসুম। নাসুমকে রিভার্স সুইপ করতে গিয়ে পয়েন্টে ক্যাচ দিয়ে আউট হন অ্যালেন। ৮ বলে ১২ রান করে আউট হন তিনি।

এরপর মেহেদীকে এগিয়ে এসে খেলতে গিয়ে কিউই অধিনায়ক টম ল্যাথামের সাজঘরে ফেরেন। ক্রিজে দাঁড়িয়ে থেকেই রান পাচ্ছিলেন। কিন্তু ধৈর্য হারিয়ে ১১তম ওভারে মেহেদীকে এগিয়ে খেলতে গিয়ে স্টাম্পিংয়ের শিকার হন ল্যাথাম।

এরপর আবারও নাসুমের জোড়া আঘাতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে নিউজিল্যান্ড। পর পর দুটি উইকেট তুলে নেন নাসুম। আগের বলে নিকোলসকে আউট করেন নাসুম। তাঁর পরের বলে উইকেটকিপার নুরুলকে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোম। নাসুম চারটি উইকেট তুলে নিলেন।

১৬ তম ওভারে এসে মোস্তাফিজের কাটার বলে সোজা ব্যাটে তুলে মেরেছিলেন টম ব্লান্ডেল। তবে মিড-অনে বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে বেশ ভালো ক্যাচ নিয়েছেন নাঈম। ব্লান্ডেল ফিরেছেন ১০ বলে ৪ রান করে। এরপর কোল ম্যাকনকি খেলেছিলেন চেক শট, সেভাবে টাইমিং-ও হয়নি। এবার নিজের বলে নিজেই বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে মোস্তাফিজ নিয়েছেন অসাধারণ এক ক্যাচ। ৩ বল খেলে শূন্য রানে ফিরে গেলেন ম্যাকনকি, ৭৪ রানে ৭ম উইকেট হারাল নিউজিল্যান্ড। মোস্তাফিজ এক ওভারে নিলেন ২ উইকেট।

চোট পেয়ে উঠে গিয়েছিলেন। মাঠে ফিরলেন, বোলিংয়ে এলেন। সাইফউদ্দিন পেয়ে গেলেন দিনে নিজের প্রথম উইকেটও। তাঁর ইয়র্কারের কোনো জবাব ছিল না এজাজ প্যাটেলের কাছে। উইল ইয়াংকে অন্য প্রান্তে রেখে ফিরলেন আরেকজন কিউই ব্যাটসম্যান, ইনিংসে ৭ বল বাকি থাকতে নিউজিল্যান্ড হারাল ৮ম উইকেট। রান ৯১।

ক্রিজে এসেছিলেন তৃতীয় ওভারে। আরেকটা বড় বিপর্যয়ের হাত থেকে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস আগলে রেখেছিলেন তিনিই। শেষ ওভারে এসে ফিফটির আগেই ফিরতে হলো উইল ইয়াংকে। মোস্তাফিজুর রহমানের বলে কাভারে মাহমুদউল্লাহর হাতে ধরা পড়েছেন তিনি ৪৮ বলে ৪৬ রান করে। ঠিক পরের বলে ব্লেয়ার টিকনারকে ক্যাচ বানিয়ে কিউইদের ইনিংস শেষ করেছেন মোস্তাফিজ। নিউজিল্যান্ড থেমেছে ৯৩ রানেই।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692