খুলনা, বাংলাদেশ | ১২ অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ | ২৭ নভেম্বর, ২০২১

Breaking News

  রাজধানীর ওয়ারী থেকে মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার হওয়া নবজাতক ঢাকা মেডিকেলে মারা গেছে
  ২৪ ঘণ্টায় করোনায় নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ ৬১ হাজার ৭১৯ এবং এ রোগে মৃতের সংখ্যা ছিল ৬ হাজার ২২৮ জন

সাতক্ষীরায় করোনা উপসর্গে নারীসহ দুই জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরায় গত ২৪ ঘন্টায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক নারীসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এনিয়ে জেলায় ১২ অক্টোবর পর্যন্ত জেলায় ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ৮৮ জন এবং করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন মোট ৭১৯ জন। নতুন করে কেউ জনের করোনা শনাক্ত হয়নি।

করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত ব্যক্তিরা হলেন, সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার বংশীপুর গ্রামের মৃত মজিদ আলী গাজীর ছেলে এবাদুল গাজী (৩৩) ও সাতক্ষীরা শহরের পুরাতন সাতক্ষীরা এলাকার মৃত লতিফ গাজীর স্ত্রী সরবানু বিবি (৭০)।

সামেক হাসপাতাল সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে গত ৩ ও ১১ অক্টোবর তারা সামেক হাসপাতালে ভর্তি হন এবং সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১২ অক্টোবর ভোর সোয়া ৪টা সকাল পৌনে ৮টার দিকে তারা মারা যান।

সামকে হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ১৩ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ৩৯ জন রোগী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর মধ্যে করোনা পজেটিভ কোন রোগী নেই। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ভর্তি হয়েছেন ২ জন ও সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৯ জন। নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি আছেন ৬ জন। করোনা উপসর্গে মারা গেছে দুই জন।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন সাফায়াত জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে মারা গেছে দুই জন। এ সময় ২৬ টি নমুনা পরীক্ষা করে করো করোনা শনাক্ত হয়নি।

তিনি আরো বলেন, ১২ অক্টোবর পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৮৬৪ জন। জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৬৭৫ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ্য হয়েছে ৫ জন। বর্তমানে জেলায় করোনা রোগী রয়েছে ১০১ জন। বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছেন ১০৫ জন। হাসপাতালে কোন করোনা রোগী ভর্তি আছে ১ জন। জেলায় ১২ অক্টোবর পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে ৮৮ জন এবং উপসর্গে মারা গেছেন আরো ৭১৯ জন।

সিভিল সার্জন আরো জানান, এপর্যন্ত জেলায় ৮৭ হাজার ৮২৬ জন এস্ট্রাজেনেকা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। আর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ৮০ হাজার ৬১ জন। এছাড়া সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ৪ লক্ষ ৪০ হাজার ৮১১ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ১ লক্ষ ৫৫ হাজার ৫৮৭ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সিনোফার্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ৭ হাজার ৪২৯ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ৯১৪ জন।

খুলনা গেজেট/ এস আই




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692