খুলনা, বাংলাদেশ | ৬ কার্তিক, ১৪২৮ | ২২ অক্টোবর, ২০২১

Breaking News

  টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টুয়েলভে বাংলাদেশ ও স্কটল্যান্ড
  ডেঙ্গুতে আরও ১৭০ জন হাসপাতালে ভর্তি, মৃত্যু ১
  অপপ্রচারের অভিযোগে বদরুন্নেসা মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক রুমা সরকার দুই দিনের রিমান্ডে
  ফেনীতে ফেসবুক লাইভে এসে স্ত্রীকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

সাতক্ষীরায় কমেছে করোনা সংক্রমণ, উপসর্গে একজনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরায় কমেছে করোনা সংক্রমণের হার। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১০ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এ সময় মোট ১৯২ টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। শনাক্তের হার ৫ দশমিক ২১ শতাংশ। এর আগের দিন শনাক্তের হার ছিল ৮ দশমিক ৩৮ শতাংশ।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ (সামেক) হাসপাতাল সূত্র জানায়, জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্টসহ করোনার নানা উপসর্গ নিয়ে ১৬ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত মোট ৭১ জন রোগী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি আছেন। এর মধ্যে ২ জন করোনা পজেটিভ ও বাকি ৬৯ জন সাসপেক্টেড। গত ২৪ ঘন্টায় মারা গেছে একজন। তবে নতুন করে ১৩ জন ভর্তি হয়েছেন ও সুস্থ হয়ে হাসপাতাল ছেড়েছেন ৮ জন। নিবিড় পরিচর্যা ইউনিটে (আইসিইউ) ভর্তি আছে ৬ জন।

সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন ডাঃ হুসাইন সাফায়াত জানান, গত ২৪ ঘন্টায় জেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে একজন মারা গেছে। এ সময় ১৯২ টি নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে আরো ১০ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে সামেক হাসপাতালের আরটি পিসিআর ল্যাবে ৯৪ টি নমুনা পরীক্ষা করে ৫ জনের ও সদর হাসপাতাল সহ বিভিন্ন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে র‌্যাপিড এন্টিজেন কীটে ৯৮ টি নমুনা পরীক্ষা করে আরো ৫ জনের করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়। শনাক্তের হার ৫ দশমিক ২১ শতাংশ।

তিনি আরো বলেন, ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সাতক্ষীরা জেলায় মোট করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ৮১২ জন। জেলায় মোট সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ৩৩৯ জন। গত ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছে ৪৩ জন। বর্তমানে জেলায় করোনা রোগী রয়েছে ৩৮৫ জন। এর মধ্যে হাসপাতালে ভর্তি করোনা রোগীর সংখ্যা ৮ জন। বাড়িতে হোম আইসোলেশনে আছেন ৩৭৭ জন। জেলায় এ পর্যন্ত ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়ে ৮৮ জন এবং উপসর্গে মারা গেছেন আরো ৬৬৮ জন।

সিভিল সার্জন আরো জানান, গত ১৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত জেলায় ৮৭ হাজার ৮২৬ জন এস্ট্রোজেনেকা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। আর দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ৮০ হাজার ৬১ জন। এদিকে সেনোফর্ম ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন ১ লাখ ৬৮ হাজার ১৪০ জন ও দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ৮০ হাজার ৩৩৮ জন।

খুলনা গেজেট/এনএম




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692