খুলনা, বাংলাদেশ | ৩১ শ্রাবণ, ১৪২৯ | ১৫ আগস্ট, ২০২২

Breaking News

  দেশে ডলারের বাজার স্থিতিশীল করতে বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলোকে আন্তঃব্যাংক ডলার বেচাকেনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক
  গুম বলে আমাদের দেশে কোনো শব্দ নেই : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

যশোরে পৃথক দুটি মাদক মামলায় দুই আসামির যাবজ্জীবন

নিজস্ব প্রতিবেদক, যশোর

যশোরে পৃথক দুটি মাদক মামলায় দুই আসামির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও অর্থদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। সোমবার স্পেশাল জজ (জেলা জজ) মোহাম্মদ সামছুল হক এ আদেশ দেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্পেশাল পিপি সাজ্জাদ মোস্তফা রাজা।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন, খুলনার ফুলতলা উপজেলার মোড়লপাড়া গ্রামের মৃত মনু মোল্লার ছেলে আব্দুস সালাম। বর্তমানে তিনি যশোরের অভয়নগর উপজেলার প্রফেসারপাড়ার বাসিন্দা এবং বেনাপোল পোর্ট থানার সাদীপুর গ্রামের খোকনের ছেলে সোহেল রানা। আসামি দু’জনই বর্তমানে পলাতক রয়েছেন।

আদালত সূত্র জানায়, ২০০৫ সালের ২৯ মে রাতে কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানতে পারে শহরের মনিহার বিআরটিসি বাস কাউন্টারের সামনে হেরোইন নিয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা অবস্থান করছেন। পুলিশ খবর পেয়ে তাৎক্ষনিকভাবে অভিযান চালিয়ে আব্দুস সালামকে আটক করে। এসময় তার দেহ তল্লাশি করে ১শ’ গ্রাম হোরোইন উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় কোতোয়ালি থানার এসআই শেখ মতিয়ার রহমান বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় মামলা দায়ের করেন। ২০০৫ সালের ২০ জুন মামলাটি তদন্ত করে কোতোয়ালি থানার এসআই আমিনুল ইসলাম, সালামকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেন। সোমবার এ মামলার রায়ে আসামির যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেন বিচারক।

এদিকে, ২০০৯ সালের ৯ মার্চ বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশ শিকড়া বটতলা এলাকা থেকে অপর আসামি সোহেল রানাকে আটক করে। পরে তার দেহ তল্লাশি করে ১শ’ গ্রাম হেরোইন উদ্ধার করে। এ ঘটনায় সোহেল রানার বিরুদ্ধে এসআই রেজাউল করীম বাদী হয়ে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলাটি তদন্ত করে এসআই নুর আলম, সোহেল রানাকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেন। সোমবার এ মামলার রায়ে আসামিকে যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদন্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ছয় মাসের কারাদন্ডের আদেশ দেন। আসামিরা পলাতক থাকায় আদালত সাজাপ্রাপ্ত দুই আসামির বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন।

 

 

খুলনা গেজেট/ আ হ আ




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692