খুলনা, বাংলাদেশ | ১ আশ্বিন, ১৪২৮ | ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২১

Breaking News

  ডেঙ্গুতে আরও ২৩৪ জন হাসপাতালে ভর্তি ; ঢাকায় ১৮২
  ইভ্যালির প্রতিষ্ঠাতা রাসেল ও চেয়ারম্যান নাসরিন গ্রেপ্তার, ২১ অক্টোবরের মধ্যে মামলার প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ আদালতের

মালিঙ্গার সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায়

ক্রীড়া ডেস্ক

লঙ্কান ক্রিকেট থেকে আরেকটি তারকা খসে পড়লো। সব ধরনের ক্রিকেট থেকে অবসর ঘোষণা করেছেন শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি পেসার লাসিথ মালিঙ্গা। আজ (মঙ্গলবার) এক টুইট বার্তায় অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

ওয়ানডে আর টেস্ট ছেড়েছিলেন আগেই। বাকি ছিল কেবল টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরমেটটাকেও এবার ‘না’ বলে দিলেন মালিঙ্গা।

টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘আমার টি-টোয়েন্টির বুটজোড়া তুলে রাখছি, সব ফরমেট থেকে বিদায় নিচ্ছি! আমার এই যাত্রায় যারা সঙ্গে ছিলেন, সবাইকে ধন্যবাদ। সামনের বছরগুলোতে তরুণ ক্রিকেটারদের সঙ্গে আমার অভিজ্ঞতা ভাগাভাগি করতে চাই।’

১৭ বছরের ক্যারিয়ারে যে সব দলে খেলেছেন, সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিশ্বের একমাত্র বোলার হিসেবে দুটি ডাবল হ্যাটট্রিকের (টানা ৪ বলে ৪ উইকেট) মালিক মালিঙ্গা।

চোটের সঙ্গে লড়াই করতে গিয়ে ২০১০ সালেই টেস্ট থেকে বিদায় নেন মালিঙ্গা। ওয়ানডে থেকে অবসরে যান ২০১৯ সালের জুলাইয়ে, বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজে খেলে। লঙ্কান ক্রিকেটের কিংবদন্তি পেসার মনে করা হয় মালিঙ্গাকে। টেস্ট ক্যারিয়ারটা বড় না হলেও (৩০ টেস্টে ১০১ উইকেট) সীমিত ওভারের ক্রিকেটে দলের সবচেয়ে বড় অস্ত্র ছিলেন তিনি।

২২৬ ওয়ানডেতে নামের পাশে ৩৩৮ উইকেট। ৮৩টি-টোয়েন্টিতে উইকেট নিয়েছেন ১০৭টি। ‘ইয়র্কারমাস্টার’খ্যাত এই পেসার ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে ছিলেন হটকেক। ২০০৮ সালে আইপিএলের দল মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স কিনে নেয় মালিঙ্গাকে। সেখানেই কাটিয়েছেন ক্যারিয়ারের ১০টি বছর। আইপিএলে ১২২ ম্যাচে ১৭০ উইকেট তার।

দলের হয়ে তিনটি আইপিএল শিরোপা, দুটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ এবং একটি পার্পল ক্যাপ জিতেছেন ডানহাতি এই পেসার। পরে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স তাকে কাজে লাগায় বোলিং মেন্টর হিসেবে। শ্রীলঙ্কার পক্ষে বিরল কিছু রেকর্ডের মালিক মালিঙ্গা। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তার রয়েছে পাঁচটি হ্যাটট্রিক। টানা ৪ বলে ৪ উইকেট নেয়ার কীর্তি আছে দুইবার।

এছাড়া আইপিএলেও এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি মালিঙ্গা। ১৬৬ উইকেট নিয়ে ভারতীয় স্পিনার অমিত মিশ্রই কেবল তার কাছাকাছি আছেন। মালিঙ্গাকে ছুঁতে তার নিতে হবে আরও ৪ উইকেট।




খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692