খুলনা, বাংলাদেশ | ৫ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ | ১৯ মে, ২০২২

Breaking News

  ২২ মে পর্যন্ত বাড়ানো হলো সরকারি-বেসরকারি হজযাত্রী নিবন্ধনের সময়
  সংসদের বাজেট অধিবেশন বসছে ৫ জুন

কলারোয়ায় ইয়াবা রেখে অপরকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেলেন

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাতক্ষীরা

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ইয়াবা ট্যাবলেট দিয়ে অপরকে ফাঁসাতে গিয়ে নিজেই ফেঁসে গেলেন মাদক কারবারি তবিবর রহমান। বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে কলারোয়া উপজেলার চন্দনপুর কলেজ মোড়ে অবস্থিত মিজানুর রহমানের ‘গনি মিষ্টান্ন ভান্ডারে’ এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ তবিবর ও তার সহযোগী গয়ড়া গ্রামের পার্শ্ববর্তী যশোরের শার্শা থানার কায়বা গ্রামের আজিজুর রহমানের ছেলে সাগর আহমেদ (২১) কে গ্রেপ্তার করেছে।

মাদক কারবারি তবিবর রহমান (৪২) সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার উপজেলার চন্দনপুর ইউনিয়নের গয়ড়া গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজ মোড়লের ছেলে।

পুলিশ জানায়, লেনদেন সংক্রান্ত সমস্যার জের ধরে গনি মিষ্টান্ন ভান্ডারের স্বত্বাধিকারী মিজানুর রহমানের সাথে মাদক কারবারি তবিবর রহমানের বিরোধ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে মাদক মামলায় ফাঁসানোর জন্য তবিবর রহমান তার সহযোগী সাগর আহমেদকে দিয়ে ৪০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট ওই মিষ্টান্ন ভান্ডারে রেখে দিয়ে আসে। পরে মিজানুর রহমান ইয়াবা ব্যবসায়ী বলে পুলিশকে গোপনে খবর দেয় তবিবর রহমান।

তবিবরের দেয়া তথ্য মতে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন মৃধার নেতৃত্বে পুলিশ বৃহস্পতিবার রাতে মিজানুর রহমানের মিষ্টান্ন ভান্ডারে তল্লাশি চালিয়ে ৪০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে। ঘটনাটির বিষয়ে সন্দেহ হলে পুলিশ সাগর আহমেদ গ্রেপ্তার করলে তবিবর তাকে দিয়ে একাজ করিয়েছে বলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে। পরে রাতে পুলিশ তবিবরের বাড়িতে অভিযান চালিয়ে মাদক কারবারি তবিবরকে গ্রেপ্তার করে। এসময় তার বাড়ি থেকে ১২ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তবিবর স্বীকার করে যে, মিজানুরকে ফাঁসাতেই সে এই নাটক সাজিয়েছে। সে নিজেকে পুলিশের একজন সোর্স বলেও দাবি করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দিন মৃধা জানান, মিজানুর রহমানকে ফাঁসানোর জন্য তবিবর নিজেই সাগর আহমেদকে দিয়ে রাতে তার মিষ্টির দোকানে ইয়াবা রেখে মিথ্যে নাটক সাজিয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করেছে। তার বিরুদ্ধে থানায় প্রতারণা ও মাদক আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।




আরও সংবাদ

খুলনা গেজেটের app পেতে ক্লিক করুন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

© 2020 khulnagazette all rights reserved

Developed By: Khulna IT, 01711903692